, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

বছর ধরে ভাঙা কালভার্ট, হাজারো মানুষের দুর্ভোগ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

বছর ধরে ভাঙা কালভার্ট, হাজারো মানুষের দুর্ভোগ

এক বছর ধরে ভেঙে আছে ঢাকার ধামরাইয়ে শ্রীরামপুর-সুতিপাড়া রাস্তার একটি কালভার্টের একাংশ। কিন্তু দীর্ঘদিনেও ভাঙা জায়গায় মেরামত বা নতুন কালভার্ট নির্মাণের কোনো উদ্যোগ দেখা যায়নি। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এ সড়কে চলাচল করা ১০ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষের। বিকল্প সড়ক না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই কালভার্টটি ব্যবহার করতে হচ্ছে তাদের।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের শ্রীরামপুর-সুয়াপুর সড়কের শ্রীরামপুর বাসস্ট্যান্ডের ১০০ গজ দূরের ওই কালভার্টটির একাংশ গত বছর ভেঙে পড়ে। এরপর থেকে ওই রাস্তা দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তবে অটোরিকশা, ভটভটিসহ ছোটখাটো যানবাহন ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। কিন্তু ধীরে ধীরে কালভার্টের ভাঙনের বিস্তার ঘটছে। ফলে ওই এলাকার আনন্দনগর, ভাটার খোলা, ধাইরা, সোয়াপুর শিয়ালকুল, ঘোড়াকান্দাসহ প্রায় ১০টি গ্রামের বাসিন্দা ও স্থানীয় সুয়াপুর, ঘোড়াকান্দা বাজার ও আশপাশের ইটভাটা ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

jagonews24

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের প্রবেশমুখে কালভার্টটি ভেঙে যাওয়ায় বড় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে ধান ও সারসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পরিবহনে একদিকে যেমন বেকায়দায় পড়তে হচ্ছে, অন্যদিকে ব্যবসায় লোকসান গুনতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, কালভার্টটি নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কাজ শুরু করছে। দ্রুত এ সমস্যার সমাধান হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. ইউসুফ হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, কালভার্টটি নতুন করে নির্মাণের জন্য আমরা সব প্রস্তুতি নিয়েছি। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। শিগগিরই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে নির্মাণকাজ শুরু হবে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ