, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

১৮ মাস পর ক্লাসে ফিরেছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

১৮ মাস পর ক্লাসে ফিরেছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

করোনা সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ ১৮ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে ক্লাসে ফিরেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা।  

আজ (রোববার) বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান, ইংরেজি, সমাজ কল্যাণ, ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগসহ বেশ কয়েকটি বিভাগ এবং ইনস্টিটিউটে ক্লাস শুরু হয়েছে।

দীর্ঘদিন পর ক্লাসে ফিরতে পেরে উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থী। তারা বলছেন দীর্ঘ ১৮ মাস পর হলেও ক্লাসে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। সেশনজট রোধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ নেবেন বলে প্রত্যাশা তাদের।

ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী তাওসিফুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাসে প্রবেশ করেছি। দীর্ঘদিন পর বন্ধুদের পেয়ে অনেক বেশি ভালো লাগছে। অনলাইন ক্লাস আর অফলাইনে অনেক পার্থক্য। বন্ধু ও শিক্ষকদের কাছ থেকে দেখা আনন্দের। তাই অনেকদিন পর ক্লাস করতে পেরে ভালো লাগা কাজ করছে। আশা করি এবার ঠিকভাবে সবকিছু শেষ করতে পারবো। 

ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের শিক্ষার্থী আরফানুল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ চাইলে আরও আগে ফেরাতে পারতো। দীর্ঘদিন পর হলেও ক্লাস করতে পেরে ভালো লাগছে। মনে হচ্ছে নতুন করে প্রাণ ফিরে পেয়েছি। আশা করি কর্তৃপক্ষ সেশনজট রোধে সর্বোচ্চ ভূমিকা রাখবে

ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. বাহাউদ্দিন বলেন, শিক্ষার্থীদের পেয়ে শিক্ষকদের মনেও আনন্দ ফিরছে। তাই আমরা প্রথমদিনেই তাদের জন্য ক্লাস রেখেছি। যেসব ঘাটতি হয়ে গেছে, সেটা আমরা পুষিয়ে নিতে পারব।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কোনো বিভাগ বা ইনস্টিটিউট চাইলে সর্বোচ্চ ৪০ শতাংশ ক্লাস অনলাইনে নিতে পারবে। তবে বাকি ৬০ শতাংশ ক্লাস নিতে হবে সশরীরে। এছাড়া ক্ষতি পোষাতে সেমিস্টার ও বার্ষিক কোর্স পদ্ধতিতে সময় কমিয়ে নিয়ে আসার কথা জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।

  • সর্বশেষ - শিক্ষাঙ্গন