ময়মনসিংহ, , ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

গাইবান্ধায় ২ করোনা রোগী শনাক্ত

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

গাইবান্ধায় ২ করোনা রোগী শনাক্ত
ফাইল ছবি

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে দুইজনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাদের একজন নারী এবং একজন পুরুষ। এই ঘটনায় জেলা জুড়ে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। রবিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি এক জরুরী সভায় সাদুল্লাপুর লক ডাউন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

উক্ত সিদ্ধান্ত অনুমোদনের জন্য গাইবান্ধা জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কমিটির নিকট পাঠানো হয়েছে। কিন্তু গাইবান্ধা জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কমিটির এই সিদ্ধান্ত অনুমোদন দেয় নাই।

উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শাহিনুর ইসলাম জানান, সাদুল্লাপুর উপজেলার হবিবুল্লাপুর গ্রামের কাজল চন্দ্র মন্ডলের বোনের বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণে তার বাড়ীতে আমেরিকা প্রবাসী দুইজন আত্মীয় গত ১১ মার্চ আসেন। তারা দুইজন কাজল চন্দ্র মন্ডলের বাড়ীতে ১১ ও ১২ মার্চ অবস্থান করে ১৩ মার্চ বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ খেয়ে গাইবান্ধা শহরের খাঁ পাড়ায় নিজ বাড়ীতে চলে যান। পরবর্তী বিষয়টি জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের নজরে এলে তাদের দুইজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়।

তিনি আরও জানান, পরে তাদের দুইজনের নমুনা ঢাকায় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়। রবিবার (২২ মার্চ ) সকালে ঢাকা আইইডিসিআর থেকে জানানো হয় তাদের নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এদিকে গত ১৩ মার্চ ওই বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানে কমপক্ষে ৫ শতাধিক আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশিদের সমাগম ঘটে। পরর্তীতে এই বিয়ে অনুষ্ঠানে দাওয়াতপ্রাপ্তরা গত ২১ মার্চ গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে ভোটও দেন। এছাড়া তারা (এই বিয়ে অনুষ্ঠানে দাওয়াতপ্রাপ্তরা) হাট-বাজারসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়েছেন। এই অবস্থায় ভাইরাসটি দ্রুত সংক্রমণ ঘটতে পারে বলে রবিবার সকালে উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি এক জরুরী সভায় সাদুল্লাপুর উপজেলা লক ডাউন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তিনি বলেন, কাজল চন্দ্র মন্ডলের স্ত্রী এখন অসুস্থ। তকে নিজ বাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নবীনেওয়াজ জানান, উপজেলা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুমোদনের জন্য গাইবান্ধা জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কমিটির সভাপতি গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের নিকট পাঠানো হয়েছে।

গাইবান্ধা জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কমিটির সদস্য সচিব গাইবান্ধা সিভিল সার্জন এসএম আবু হানিফ বলেন, বিষয়টি নিয়ে অলোচনা চলমান আছে।

গাইবান্ধা জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক মোঃ মতিন জানান, লক ডাউন করার মত পরিস্থিতি সৃষ্টি না হওয়ায় ওই সিদ্ধান্ত অনুমোদন দেওয়া হয় নাই।

  • সর্বশেষ - আলোচিত খবর