, ৯ মাঘ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই ইরানের ব্যাপক সামরিক মহড়া

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই ইরানের ব্যাপক সামরিক মহড়া

ইরানের সেনাবাহিনী হরমুজ প্রণালীর পূর্ব সেক্টর থেকে ভারত মহাসাগরের উত্তর প্রান্ত ও লোহিত সাগরের কিছু অংশ পর্যন্ত বিস্তৃত এলাকায় বড় ধরনের সামরিক মহড়া শুরু করেছে। দেশটির বিমানবাহী ইউনিট, বিশেষ বাহিনী এবং র্যাপিড অ্যাকশন ব্রিগেডস এ মহড়ায় অংশ নেয়। রোববার (৭ নভেম্বর) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

কয়েকদিন আগে ওমান সাগরে ইরানের একটি তেলের ট্যাঙ্কার জব্দ করে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী। তারপর ইরানের আইআরজিসির নৌ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ওই ট্যাঙ্কার উদ্ধার করে। এর জেরেই এমন সামরিক মহড়ার আয়োজন করেছে ইরান।

রোববার সকালে দেশটির সামরিক মহড়া শুরু হয়। এতে সৈন্য, জাহাজ, সাঁজোয়া যান, মনুষ্যবাহী ও চালকবিহীন বিমান, আক্রমণাত্মক এবং প্রতিরক্ষামূলক উভয় ক্ষমতা সম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র ও রাডার সিস্টেম অংশ নেবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ইরানের সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চীফ আবদোলরহিম মুসাভি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে বলেন, মহড়াটি হরমুজ প্রণালী, ওমান সাগর এবং ভারত মহাসাগরের উত্তর অংশের এলাকা জুড়ে অনুষ্ঠিত হবে। ম্যাক্রান উপকূল ছাড়াও সিস্তানের দক্ষিণপূর্ব প্রদেশে, বেলুচিস্তান এবং হরমোজগানের সাধারণ এলাকায় এই মহড়া অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, আমাদের বাহিনী এ এলাকায় জড়ো হওয়ার পর শত্রুরা তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছে। আজ থেকে আমরা শত্রুর গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করার জন্য আমাদের প্রচেষ্টাকে আরও জোরদার করবো।

সমুদ্রে স্পীডবোটের চালাচল, সৈন্যদের যুদ্ধ হেলিকপ্টারে আরোহন এবং সৈকত এলাকায় অবতরণ করার জন্য বিমান থেকে প্যারাশুট পরে সেনা কমান্ডোরা লাফিয়ে পড়ছে এমন ভিডিও ফুটেজ সম্প্রচার করেছে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনা, ইসরায়েলের হুমকি ও প্রতিবেশী দেশ আজারবাইজানের সঙ্গে মতবিরোধের মধ্যেই ইরানের সেনাবাহিনী এবং আইআরজিসি সাম্প্রতিক মাসগুলোতে দেশটির বিভিন্ন অংশে বেশ কয়েকটি বড় ধরনের সামরিক মহড়া চালিয়েছে।

  • সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক