, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

শিশু অপহরণের পর দত্তক দিতে গিয়ে ধরা নারী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

শিশু অপহরণের পর দত্তক দিতে গিয়ে ধরা নারী

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে কাইয়ুম নামে অপহৃত দেড় বছরের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এ সময় সাথী (২২) নামে এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়।

রোববার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার সন্ধানপুর ইউনিয়নের কুশারিয়া গ্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী নারীকে আটক করা হয়।

অপহরণ হওয়া শিশু কাইয়ুমের বাড়ি টাঙ্গাইল সদর পৌরসভার ব্যাপারীপাড়া এলাকায়। আটক সাথী ভূঞ্রাপুর উপজেলার গোবিনদাসী গ্রামের মানিক মিয়ার মেয়ে।

সন্ধানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম জানান, রোববার সকাল থেকেই আটক হওয়া সাথী নামের ওই নারী কুশারিয়া গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় শিশু কাইয়ুমকে নিয়ে ঘোরাফেরা করছিল। এ সময় শিশুটিকে দত্তক নিতে অনেককে অনুরোধ করেন তিনি। এ অবস্থায় দুপুরে স্থানীয় মুনছুর আলী তার নিঃসন্তান মেয়ের জন্য দত্তক নিতে রাজি হন। মুনছুর খেয়াল করেন শিশুটি ওই নারীর কোলে কোনোভাবেই থাকতে চাচ্ছে না, কান্নাকাটি করতে থাকে। বিষয়টি তার সন্দেহ হলে বাচ্চাসহ ওই নারীকে চেয়ারম্যানের কাছে নিয়ে আসেন। পরে চেয়ারম্যানের জেরার মুখে সে শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে আসার কথা স্বীকার করেন।

jagonews24

ইউপি চেয়ারম্যান আরও বলেন, বিষয়টি জানাজানি হলে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং সাথীকে আটক করে।

টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ এর কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, শনিবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে শিশুর নিখোঁজ বিষয়ে টাঙ্গাইল সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন শিশু মো. কাইয়ুমের বাবা মো. সেলিম মিয়া। সেই ডায়েরি আমলে নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে সাথীর লোকেশন শনাক্ত করার চেষ্টা করে র‌্যাব।

তিনি আরও বলেন, বারবার সাথী তার জায়গা পরিবর্তন করতে থাকে। আমরা বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করি। উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে তার বাবা-মার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ