, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

এখনও চূড়ান্ত নয় বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি, নেই কোনো আইকন

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

এখনও চূড়ান্ত নয় বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি, নেই কোনো আইকন

সাকিব আল হাসান বরিশালে, বরিশালের এবারে ফ্র্যাঞ্চাইজি ফরচুন গ্রুপ, ঢাকার আইকন হচ্ছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা- এমন সব খবরে ছেয়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। সংবাদমাধ্যমেও কিছু কিছু খবর আসছে।

আসলে ভেতরের খবর কী? বিপিএলে এবার সত্যি কতটি দল অংশ নেবে? তারা কারা? কোন কর্পোরেট হাউজ কোন দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি? তাদের আইকন কে বা কারা? এবারের বিপিএলের স্থানীয় ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিকই বা কত হবে? আইকন প্রথা থাকবে কি থাকবে না?

এসব প্রশ্ন ক্রিকেট অনুরাগিদের মনে উকি ঝুঁকি দিচ্ছে। কিন্তু মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) পর্যন্ত এর সত্যিকার কোনো উত্তর মেলেনি। মেলেনি না বলে, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল ওপরের একটি বিষয়ও এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে বলেনি বলাই বোধ করি যুক্তিযুক্ত হবে।

খুব প্রাসঙ্গিকভাবেই উঠেছে প্রশ্ন, তাহলে ফেসবুক ও গণমাধ্যমে যে কিছু খবর প্রকাশিত হয়েছে, সেগুলো কি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন? খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নাহ! তাও নয়। কিছু খবরের ভিত্তি আছে। তবে একদম খাটি কথা হলো, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো কিছু প্রকাশ করেনি।

কোন ছয় কর্পোরোট হাউজ এবারের ফ্র্যাঞ্চাইজি? তাদের নাম কী? কে কোন দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে চেয়েছে এবং হচ্ছে? তা এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে চূড়ান্ত হয়নি। তবে বিপিএল আয়োজকদের সর্বোচ্চ পর্যায়ের দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে কথাবার্তা হয়ে গেছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে।

অতি নির্ভরশীল সূত্র জানিয়েছে, আগ্রহী ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে কথাবার্তা হয়ে গেছে। এখন বিসিবি তাদের অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা খুঁটিয়ে দেখেছে। যারা আগ্রহী, তারা আসলে ফ্র্যাঞ্চাইজি হওয়ার মতো আর্থিকভাবে স্বচ্ছল কি না? প্লেয়ার্স পেমেন্ট ঠিকমতো দিতে পারবে কি না? এসব বিষয় দেখা হচ্ছে।

তারপর বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল আগ্রহী ফ্র্যাঞ্চাইদের চুক্তি অনুযায়ী অর্থ প্রদানের সময়সূচি বেঁধে দেবে। ঐ সময়ের ভেতরে যারা ঠিকমতো চুক্তি অনুযায়ী অর্থ দিতে পারবে, তাদের সঙ্গে এ বছরের জন্য চুক্তি হয়ে যাবে। তখনই কেবল বিসিবি বা বিপিএল কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবে কারা আসল ফ্র্যাঞ্চাইজি!

আগেই জানা বেক্সিমকো, বসুন্ধরা ও জেমকন গ্রুপ নেই এবার। পুরোনোদের মধ্যে সাবেক বিসিবি প্রধান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল তনয়া নাফিসা কামাল এবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে আগ্রহী। তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি হওয়া একরকম নিশ্চিত।

বাকি পাঁচ দলের কারোই এখনও ফ্র্যাঞ্চাইজি হওয়া নিশ্চিত নয়। বোর্ড থেকে তাদের কাউকে কোনোরকম নিশ্চয়তার চিঠি প্রদান করা হয়নি। বিপিএলের এক দায়িত্বশীল কর্তা জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন মঙ্গলবার রাতে।

এখন পরের ধাপ হলো কোন দলের আইকন কে হবেন? বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এবার কোনো আইকন নেই। সবার নাম ড্রাফটে উঠবে। তবে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের জন্য একটি করে খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ থাকবে। সেটা আইকন নয়। অনেকটা অটো চয়েজের মত।

প্রতি দল প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগে একজন করে ক্রিকেটারকে দলে নিতে পারবে। সেটা কোন ক্যাটাগরি থেকে নয়। যেখান থেকে খুশি, সেখান থেকে নেয়া যাবে। সে আলোকেই এর ওর নাম শোনা যাচ্ছে । যে ফ্র্যাঞ্চাইজি যাকে নিতে আগ্রহী তার নাম প্রকাশ করেছেন। তবে সেটা চূড়ান্ত নয়। আনুষ্ঠানিকভাবে বলাও যাবে না, যতক্ষণ পর্যন্ত সেই দলের ফ্র্যাঞ্চাইজি স্বত্ব নির্ধারিত না হয়।

এছাড়া এবারের বিপিএলে আরও একটি নতুনত্বের সংযোজন ঘটানোর ইচ্ছে আয়োজকদের। তাহলো এবার আর ‘এ প্লাস’, ‘এ’ এসব থাকবে না। সরাসরি এ, বি, সি, ডি, ই ও এফ- ছয় ক্যাটাগরিতে ক্রিকেটার নেয়া যাবে। স্থানীয় ক্রিকেটারদের এই ছয় ক্যাটাগরিতেই পারিশ্রমিক দেয়া হবে।

জানা গেছে, এবার স্থানীয় ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাড়বে। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সূত্র জানিয়েছে ‘এ’ ক্যাটাগরির সর্বোচ্চ প্রস্তাবিত পারিশ্রমিক ৭০ লাখ টাকা। সেটাও ভেতরে ভেতরে কথা হয়েছে। আগে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক ছিল ৫০ লাখ, এবার তা বাড়িয়ে ৭০ লাখ করার কথা বলা হয়েছে।

বি ক্যাটাগরির আগের পারিশ্রমিক বাড়িয়ে ৪০ রাখে ওঠানোর কথা বলা হয়েছে। সি ক্যাটাগরির পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে ২৫ লাখ। এরপর ডি ক্যাটাগরি ১৮ লাখ। ই ক্যাটাগরি ১২ লাখ এবং এফ ক্যাটাগরির পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে ৫ লাখ টাকা।

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা