, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

রোজায় ছোলা খাওয়ার উপকারিতা

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

  প্রকাশ : 

রোজায় ছোলা খাওয়ার উপকারিতা

প্রতিদিনের ইফতারের অন্যতম অংশ হলো ছোলা। রোজা ছাড়াও সারা বছর বিকেলের নাস্তা হিসেবে ছোলার উপস্থিতি থাকে। এটি খাওয়া যায় কাঁচা, সালাদে, সেদ্ধ করে ভেজে কিংবা ভুনা করে। যেভাবেই খান না কেন, ছোলা খেলে মিলবে অনেকগুলো উপকার। ভিজিয়ে রাখার পর কাঁচা ছোলা খেলে তা শরীরের জন্য অনেক বেশি কার্যকরী হয়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, ছোলা খাওয়ার উপকারিতা।

হজমে সাহায্য করে

হজম প্রক্রিয়া সহজ না হলে শরীরে নানা ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয়। নিয়মিত ছোলা খেলে তা হজম সহজ করতে সাহায্য করে। কারণ হজম সহজ করার জন্য একটি প্রয়োজনীয় উপাদান হলো ভোজ্য আঁশ। ভোজ্য আঁশের অভাবে দেখা দেয় হজমের সমস্যা। ছোলা সেই ভোজ্য আঁশের ঘাটতি পূরণ করতে সাহায্য করে। ছোলায় আছে র‌্যাফিনোজ নামক এক ধরনের দ্রবণীয় ভোজ্য আঁশ। এটি পেটের খাবার ধীর গতিতে ভাঙে। র‌্যাফিনোজকে ভাঙতে সক্ষম হলো একমাত্র স্বাস্থ্যকর ব্যাক্টেরিয়াই। ফলে ছোলা খেলে তা মলত্যাগের সময় কষ্ট কমায়। রোজায় হজমের সমস্যা এড়াতে তাই ছোলা খাওয়া জরুরি।

কোলেস্টেরল কমায়

সুস্থ থাকার জন্য কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করা জরুরি। অতিরিক্ত কোলেস্টেরলের কারণে হতে পারে হৃদরোগ, শারীরিক স্থূলতা, স্ট্রোকসহ অনেক রোগ। ছোলায় থাকা দ্রবণীয় ভোজ্য আঁশ এসব অসুখ দূরে রাখতে কাজ করে। এই আঁশ অন্ত্রের সুস্বাস্থ্য ধরে রাখে। যে কারণে নিয়ন্ত্রণে থাকে শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ।

হাড় মজবুত করে

বর্তমানে হাড়ের সমস্যা অনেক বেশি দেখা যাচ্ছে। একটু বয়স বাড়তেই হাড়ের বিভিন্ন অসুখে ভুগতে শুরু করছেন অনেকে। সঠিক খাবার খাওয়ার মাধ্যমে হাড়ের সমস্যা থেকে দূরে থাকা সম্ভব। সেজন্য গ্রহণ করতে হবে পর্যাপ্ত ভিটামিন ডি, খেতে হবে ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার। ছোলায় পাওয়া যায় পর্যাপ্ত ম্যাগনেসিয়াম ও ক্যালসিয়াম। ফলে নিয়মিত ছোলা খেলে হাড় মজবুত হয়।

  • সর্বশেষ - লাইফ স্টাইল