, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন প্রতিবেদনে বাস্তবচিত্র তুলে ধরা হয়েছে: রিজভী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

মার্কিন প্রতিবেদনে বাস্তবচিত্র তুলে ধরা হয়েছে: রিজভী

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতিবেদনে বাস্তবচিত্র তুলে ধরা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক কারণে বন্দি করা হয়েছে, তিনি রাজবন্দি। এখানে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নেই, কথা বলার স্বাধীনতা নেই। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিচারবহির্ভূত হত্যা ও গুমসহ নানা ধরনের নিপীড়নে জড়িত। তাদের জবাবদিহি করা হয় না। তবে প্রতিবেদনে বাস্তবচিত্র তুলে ধরা হলেও ক্ষমতাসীন দলের নেতা-মন্ত্রীদের গায়ে খুব লেগেছে।’

শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) রাজধানীর বাড্ডার প্রিমিয়ার প্লাজায় গ্যালারি-৯-এ এক ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মানবসেবা সংঘের উদ্যোগে এ দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন- মার্কিন প্রতিবেদনের সঙ্গে তিনি একমত নন। একটি নির্দিষ্ট সূত্র থেকে তথ্য নিয়ে প্রতিবেদন করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি।’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, ‘ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতা-মন্ত্রীদের বক্তব্য আমার কাছে অদ্ভূত লাগে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রীদের একবার সিটি স্ক্যান করা দরকার। সিটি স্ক্যান করলে অবশ্যই দেখা যাবে, প্রত্যেকের মাথা কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত। কারণ উনারা যেটা বিম্বাস করেন, কেবল সেটাই বলতে হবে। যেমন- মিষ্টি কুমড়ার বেগুনি, এটাই বলতে হবে। বাস্তবতা হচ্ছে মিষ্টিকুমড়া দিয়ে বেগুনি হয় না। যেহেতু সরকারপ্রধান বলেছেন, এটাই হলো আসল তথ্য। আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্টকেও সেটাই বলতে হবে, তাদের প্রতিবেদনের মধ্যে সেটাই রাখা উচিত ছিল।’

রিজভী বলেন, ‘সরকার মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার, কথা বলার অধিকার, নির্ভয়ে-নির্বিঘ্নে চলাচলের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। তারপরও হাছান মাহমুদরা বলবেন, এটাই গণতন্ত্র। দেশে ফ্যাসিবাদী শাসন চলছে। কিন্তু সরকার বলছে, দেশে গণতন্ত্র রয়েছে। আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্টকেও সেটাই স্বীকার করতে হবে। অন্যথায় তারা (সরকার) বলবে, কোনো নির্দিষ্ট সূত্র থেকে তারা এ তথ্য পেয়েছে। এটাই হচ্ছে আওয়ামী লীগ।’

মানবসেবা সংঘের সভাপতি সঞ্জয় দে রিপনের সভাপতিত্বে এবং গোবিন্দ কুণ্ডুর সঞ্চালনায় এতে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সাংস্কৃতিকবিষয়ক সম্পাদক আশরাফ উদ্দিন আহমেদ উজ্জ্বল, স্বেচ্ছাসেবক দলের আব্দুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক নেতা আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি কাজী আমীর খসরু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, ছাত্রদলের সাবেক নেতা মেহেবুব মাসুম শান্ত, আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আরেফিন প্রমুখ।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি