, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

ক্রিকেটারকে ‘হুমকি’ দিয়ে নিষেধাজ্ঞার মুখে ভারতের সাংবাদিক

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

ক্রিকেটারকে ‘হুমকি’ দিয়ে নিষেধাজ্ঞার মুখে ভারতের সাংবাদিক

ভারতের উইকেটরক্ষক ব্যাটার ঋদ্ধিমান সাহাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে নিষিদ্ধ হতে চলেছেন দেশটির সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদার। এ বিষয়ে তদন্ত করে বোরিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

গত ফেব্রুয়ারিতে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া নিয়ে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে আলাদা আলাদা সাক্ষাৎকার দেন ঋদ্ধিমান। তখন এক সাংবাদিক (তদন্তে পাওয়া গেছে তিনি বোরিয়া মজুমদার) ঋদ্ধিমানকে পরামর্শ দেন, জনে জনে সাক্ষাৎকার না দিয়ে যেকোনো একজনকে বেছে নিতে।

কিন্তু সেই সাংবাদিকের পরামর্শে কান দেননি ঋদ্ধিমান। পরে সেই সাংবাদিক নিজেই যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন ঋদ্ধিমানের সঙ্গে। সেখানেও কোনো সাড়া দেননি ভারতের এ উইকেটরক্ষক ব্যাটার। ফলে রেখে গিয়ে ঋদ্ধিমানকে দেখে নেওয়ার প্রছন্ন হুমকি দেন সেই সাংবাদিক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সেই সাংবাদিকের পাঠানো মেসেজের স্ক্রিনশট আপলোড করেছিলেন ঋদ্ধিমান। যা দেখে ভারতের সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটার-কোচরা তার পাশে দাঁড়ান। দলের সাবেক হেড কোচ রবি শাস্ত্রি বিসিসিআই প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলিকে এ বিষয়ে নজর দিতে আহ্বান জানান।

এর প্রেক্ষিতে তিন সদস্যের এক কমিটি গঠন করে বিসিসিআই। যেখানে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের পর বোরিয়া মজুমদারকে দোষী সাব্যস্ত করেছে তদন্ত কমিটি- এমনটাই জানাচ্ছে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো। তাই দুই বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা পেতে চলেছেন এ সাংবাদিক।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এক মুখপাত্র পরিচয় গোপন রাখার শর্তে ভারতের সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমরা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সকল রাজ্যসংস্থাকে বলে দেবো, তাকে (বোরিয়া মজুমদার) যেনো স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে না দেওয়া হয়।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘দেশের মাঠে হওয়া কোনো ম্যাচে সে অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড পাবে না। তাকে ব্ল্যাকলিস্টে রাখার জন্য আইসিসির কাছে চিঠি পাঠানো হবে। খেলোয়াড়দেরও বলে দেওয়া হবে তার সঙ্গে যেনো কোনো যোগাযোগ না রাখে।’

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা