, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

আনিস ফারদীনের চারটি কবিতা

  সাহিত্য ডেস্ক

  প্রকাশ : 

আনিস ফারদীনের চারটি কবিতা

তোমাকে চাই

সাদা কাগজে তোমায় আমি লিখতে চাই
উগড়ে দিতে চাই পৃথিবীর যত ভাষা
ওই সমুদ্র থেকে আসমুদ্র হিমাচল কিংবা
আকাশ থেকে দিগন্ত বিস্তৃত স্বর্গ-পাতাল।

সূর্য থেকে অলিক ধূমায়িত জলীয়বাষ্প
মন্দির, মসজিদ, গীর্জা, প্যাগোডা, জগৎ
সবখানে জানিয়ে দিতে চাই এক বাক্যে
তুমি আমার, শুধুই এই আমার।

আমি বিশুদ্ধ মাতাল হয়ে শুধু তোমাকে চাই,
চাওয়া-পাওয়ার সম্মিলনে, গল্প কিংবা পথচলায়
অল্প আদুরে হিসেবে কিংবা দৃঢ় শপথে
আকাশ-বাতাস প্রকম্পিত করে তোমাকে চাই।

একলা একার হিসেবে, কায়মনো প্রার্থনায়
শিশির ছোঁয়া দিনের প্রারম্ভে, নিয়ন আলোর সন্ধ্যায়
শেষ বিকেলের পথ চলায়, জীবনের আয়নাতে
জীবনবোধের সব কিছুতেই শুধু তোমাকেই চাই।

****

যাযাবরের পথ

ভুলগুলো ঝাপটে ধরে, এলোমেলো হয় সব
ইচ্ছেরা বন্দী হয়ে পড়ে ঘোর অমানিশায়;
শূন্যে ভেসে যায় যতসব চাওয়া-পাওয়া
নিদারুণ ব্যথায় মুষড়ে পড়ে।

যাযাবরের পথ হয়ে ওঠে অগত্যা স্তিমিত যাত্রা
কালের খেয়ালে মরে যায় যতসব ইচ্ছে;
ব্রাকেটবন্দী হয়ে হতাশায় মরে যায় সব
ভুলে ভুলে চলে জীবন, বাড়ে দেনা ভুল পথে।

আলো অস্ত যায়, আঁধারে ঢেকে যায় বিস্তর
খেয়া ঘাটের খেয়া ছেড়ে যায় একা ফেলে;
ব্যস্ত শহরের অচেনা গলিতে ধুঁকে ধুঁকে মরি
শুধু থেকে যায় দীর্ঘশ্বাস, পুড়ে যায় অবিরত।

****

মন ফাগুনের বিকেল

মন ফাগুনের বিকেলে
এসে পড় একলা একা,
লাল গালিচার শহরে
দেখা হবে মনের দেখা।

কলমি ফুলের আবহে
সুভাস ছড়াবে বাতাসে,
মন ফাগুনের মিলনে
ওই আকাশে চাঁদ হাসে।

গানের সাথে গান হবে
গল্প-কল্প এক সাথে,
আনন্দে-উদ্বেল তরঙ্গ
মনের সাথে মন মাতে।

হাতের সাথে হাতে থাকে
মনের সাথে গেঁথে মন,
জীবনের সাথে জীবন
চলবে জীবন আমরণ।

****

দুঃখ

তুমি আকাশ হতে চেয়েছো
আকাশ হয়েছো ঠিকই—
শুধু আমিই রয়ে গেছি মাটিতে
তবু তোমার এতো দুঃখ কেন?

আমার তো কোনো দুঃখ নেই
তবে কি জানো!

দুঃখরা আকাশ-পাতাল বোঝে না
যেখানে ভেড়ার তারা ভিড়বেই—
দুঃখরা কখনো ভুল হিসেব করে না
ভুল হিসেব শুধু মানুষই করে!

  • সর্বশেষ - সাহিত্য