, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

গোর-এ শহীদ ময়দানে একসঙ্গে নামাজ পড়লেন ৬ লাখ মুসল্লি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

গোর-এ শহীদ ময়দানে একসঙ্গে নামাজ পড়লেন ৬ লাখ মুসল্লি

এশিয়া মহাদেশের সর্ববৃহৎ ঈদগাহ মিনার দিনাজপুর গোর-এ শহীদ ময়দানে অনুষ্ঠিত হলো দেশের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত। প্রায় ২২ একর জায়গার গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানের এ জামাতে দূর-দূরান্ত থেকে আসা প্রায় ছয় লাখ মুসল্লি অংশ নেন।

মঙ্গলবার (৩ মে) সকাল ৯টায় ঈদের জামাত মুসল্লিদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। সকাল থেকে মুসল্লিদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে দিনাজপুর গোর-এ-শহীদ বড় ময়দান।

নামাজে অংশ নেন বিচারপতি এনায়েতুর রহিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ লাখো মুসল্লি। বৃহৎ ঈদ জামাতে নামাজ আদায় করতে পেরে আনন্দে আপ্লুত হন মুসল্লিরা।

শুধু দিনাজপুরের মানুষই নয়, ঢাকা-চট্টগ্রাম, সাতক্ষীরা, বগুড়া, রংপুর, নীলফামারী ও জয়পুরহাটসহ আশপাশের জেলার অনেক মুসল্লি এ ঈদ জামাতে অংশ নেন।

সবচেয়ে বড় এই ঈদের জামাতের ইমামতি করেন দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতাল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা শামসুল ইসলাম কাশেমী। নামাজ শেষে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন তিনি।

ঈদের জামাত সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে স্থানীয় প্রশাসন। কড়া নিরাপত্তায় সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে মুসল্লিরা নামাজ আদায় করেন।

এর আগে সকাল থেকে মুসল্লিরা সাইকেল, মোটরসাইকেল, ইজবাইক, বাস, মিনিবাস, কার ও মাইক্রোবাসসহ বিভিন্ন যানবাহনে ও হেঁটে ঈদগাহ মাঠে আসেন। এ সময় শহরের সব রাস্তাগুলো যেন একমুখী হয়ে যায়।

যদিও সকাল থেকে আকাশ মেঘলা ছিল। মানুষের মধ্যে আশংকা দেখা দেয় শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি হয় কিনা।

ঈদের নামাজ শুরুর আগে শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন আপিল বিভাগের বিচারপতি এম এনায়েতুর রহিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা প্রশাসক খালিদ মোহাম্মদ জাকী ও পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন।

নামাজ শেষে উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ ঈদের এ জামাত সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে এশিয়ার সবচেয়ে বড় ঈদগাহ মিনার নির্মাণের উদ্যোক্তা জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম বলেন, এই ঈদের জামাতে এবার ৬ লাখ মুসল্লি নামাজ আদায় করেছেন। আগামীতে মুসল্লি আরও বৃদ্ধি পাবে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ