, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

কুমিল্লায় স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৩

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

কুমিল্লায় স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৩

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ভৈরবপুরে পাওনা টাকার জন্য এক স্কুলছাত্রকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার (০৬ মে) রাতে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (০৩ মে) এ ঘটনা ঘটলেও সম্প্রতি একটি ছবি সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

আটকরা হলেন- মো. নাহিদুল ইসলাম (২০), মো. নাজমুল হোসেন (২৩) ও জসিম উদ্দিন (২৭)। 

শনিবার (০৭ মে) সকাল ১০টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার। তিনি জানান, ঘটনাটি কুমিল্লা পুলিশ সুপার স্যারের নজরে আসার দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রের বাবা বলেন, কিছু দিন আগে পাশের গ্রাম ভৈরবপুর এলাকার দুলু মিয়ার ছেলে নাহিদুলের দোকান থেকে একটি খাট বানিয়েছিলাম। খাটের প্রায় সব টাকা দেওয়া হয়ে গেছে। আর ৪৫০ টাকা বকেয়া রয়েছে। ঈদের কয়েক দিন আগে নাহিদুল আমার বাড়িতে এসে টাকার জন্য গালাগাল করে। এ সময় তাকে অনুনয় করে জানায়, আমার ছোট ছেলেটা কয়েক দিন আগে পানিতে ডুবে মারা গেছে। কাজ করতে পারিনি। হাত খালি। সপ্তাহ খানেক পরে দিয়ে দেব। তবুও সে এটা নিয়ে বাড়াবাড়ি করে আমার গায়ে হাত তোলে।

ঈদের দিন আমার ছেলে বন্ধুদের এঙ্গ ঘুরতে বের হলে, তাকে তার বন্ধুদের সামনে থেকে অস্ত্র ঠেকিয়ে টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে যায় নাহিদুলসহ আরও কয়েকজন। নাজমুল তার বাড়িতে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রেখে মারধর করে। এ সময় আমি বাইরে কাজে ছিলাম। খবর পেয়ে বাড়িতে এসে থানায় ফোন দেই। পরে স্থানীয় ইউপি সচিব ও গ্রাম পুলিশ সেখান থেকে আমার ছেলেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে বুড়িচং থানায় মামলা করার পর তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কুমিল্লা জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ জানাই। তাদের উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ