ময়মনসিংহ, , ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

কুষ্টিয়ায় ‘করোনায়’ মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

কুষ্টিয়ায় ‘করোনায়’ মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন
ফাইল ছবি

কুষ্টিয়ায় সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত এক ইজিবাইক চালকের (৪০) মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল ৭টারদিকে ওই ব্যক্তির পরিবারের সদস্যরা তাকে কুষ্টিয়া ২৫০ বেড জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনার পর চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি শহরের চৌড়হাস এলাকায় একটি ভাড়াবাড়িতে পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ২৭ মার্চ শুক্রবার ওই ইজিবাইক চালকের জ্বর, সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হন। পরবর্তীতে তার শুরু হয় শ্বাসকষ্ট। শ্বাসকষ্টের এক পর্যায়ে তিনি গুরুতর অসুস্থ ও নিস্তেজ হয়ে পড়েন। এ অবস্থায় পরিবারের লোকজন তাকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে আনার আগেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তিনি করানোভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্ত বলে চিকিৎসকরা ধারণা করছেন।

কুষ্টিয়া ২৫০ বেড জেনারেল হাসপাতালের আএমও ডাক্তার তাপস কুমার সরকার জানান, মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আইডিসিআর পরীক্ষাগারের ফলাফলে তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিতভাবে বলা যাবে। তবে ওই ব্যক্তির লক্ষণ অনুযায়ী প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে তিনি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী ছিলেন। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের নির্দেশনা অনুসরণ করে লাশ দাফন সম্পন্ন করা হবে বলেও তিনি জানান। ইজিবাইক চালক বিদেশি কারো সংস্পর্শে ছিল না কিংবা তার পরিবারে কোনো প্রবাসীর বসবাস ছিল না। কুষ্টিয়া শহরেই তিনি ইজিবাইক চালাতেন। গাড়ি নিয়ে চলাচলের সময় করোনা ভাইরাসের বাহক কারও সংস্পর্শে তিনি সংক্রমিত হতে পারেন বলে চিকিৎসকরা ধারণা করছেন। এদিকে সতর্কতা হিসাবে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা কয়েকজনকে হোম কোয়ারেন্টিইনে পাঠানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন জানান, ওই ব্যক্তির বাড়িতে ইউএনও জুবায়ের হোসেন চৌধুরীসহ পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নমুনার প্রতিবেদন না পাওয়া পর্যন্ত ওই বাড়িটি লকডাউন থাকবে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ