, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

বাজারে ৬০ টাকার নিচে সবজি নেই

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

বাজারে ৬০ টাকার নিচে সবজি নেই

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম ধাপে ধাপে বেড়েই চলছে। দাম কমলেও দুদিন পর আবারও বেড়ে যাচ্ছে। খোদ বিক্রেতারাই বলছেন, সবজির দাম শুধু বাড়ছেই। বাজারে ৬০ টাকার নিচে কোনো সবজি নেই। বাজার ঘুরেও দেখা গেলো তাই।

রোববার (১৫ মে) রাজধানীর বাড্ডা, বাড্ডা গুদারাঘাট, রামপুরা, মালিবাগ ও সেগুনবাগিচা কাঁচাবাজার এলাকা ঘুরে দেখা যায়, খুচরা বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, রসুন ১৪০ থেকে ১৫০, আদা ১০০, মসুর ডাল দেশি ১৪০ টাকা, আলু ২৫ থেকে ৩০ ও ডিম বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা হালি।

মধ্যবাড্ডা বাজারের খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতা সবুজ জেনারেল স্টোরের মালিক মো. সবুজ বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় পেঁয়াজের দাম ৫ টাকা বাড়তি, রসুনের দাম ২০ থেকে ৩০ টাকা, ডিমের হালি ৫ টাকা বাড়তি ও মসুর ডাল ১০ টাকা বাড়তি।

jagonews24

তবে দাম কিছুটা কমেছে ব্রয়লার মুরগির। সাদা ব্রয়লার বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকা কেজি ও লেয়ার ২৮০ টাকা কেজি।

মুরগি বিক্রেতা মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, গত সপ্তাহে সাদা ব্রয়লার কেজি ছিল ১৮০ টাকা ও লেয়ার ৩০০ টাকা।

বাজারে সব ধরনের সবজির দামই বাড়তি। বাজার ঘুরে দেখা যায়, শসা প্রতি কেজি ৪০ থেকে ৫০, কাঁকরোল ৮০, কচুরমুখী ৮০ থেকে ১০০, বেগুন ৮০, করলা ৬০ থেকে ৭০, পেঁপে ৬০, টমেটো ৬০, ফুলকপি ৬০, কাঁচামরিচ ১২০, ঢেঁড়শ ও পটল বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকা।

বাড্ডা বাজারের সবজি বিক্রেতা মো. পারভেজ বলেন, ৬০ টাকার নিচে বাজারে এখন কোনো সবজি নেই। আমাদের বেশিতেই কেনা পড়ছে। সবজির দাম প্রতিদিনই কমে-বাড়ে। দাম কমলে আবার বাড়ে।

রামপুরা বাজারে কেনাকাটা করছিলেন মাজেদুল নামে এক ক্রেতা। দোকানির সঙ্গে কথা বলার সময় পাশ থেকে তিনি বলে ওঠেন, সব জিনিসেরই তো দাম বাড়তি, সেটা বলে দিলেই তো হয়। দাম তো কোনোটারই কম নয়।

  • সর্বশেষ - অর্থ-বাণিজ্য