, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

ঢাবিতে পুকুরে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ঢাবিতে পুকুরে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের পুকুরে গোসলে নেমে পানিতে ডুবে পলাশ আহমেদ নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী।

রোববার (২৯ মে) দুপুর ২টা ২৫ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, রোববার দুপুরে শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের পুকুরে গোসলে নেমে ডুবে যান পলাশ আহমেদ। প্রায় ২৫ মিনিট পর তাকে উদ্ধার করতে আসে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল। এর আগেই তার বন্ধু ও হলের শিক্ষার্থীরা তাকে উদ্ধার করেন।

উদ্ধারের পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। দ্রুত তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। তবে দুপুর ২টা ২৫ মিনিটে তিনি মারা যান।

নিহতের বন্ধু সাইফুল ইসলাম বলেন, আমরা সবাই মিলে পুকুরে গোসল করছিলাম। এসময় পলাশ হঠাৎ পানিতে তলিয়ে যান। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও বলেন, পলাশ জামালপুরের মাদারগঞ্জ থানার সদরাবাড়ি গ্রামের মো. আতাউর রহমানের সন্তান। তিনি ঢাবির শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের ৩০১৪ নম্বর রুমে থাকতেন।

শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আব্দুর রহিম জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘হলের পুকুরে এক শিক্ষার্থী গোসলে নেমে ডুবে যায়। তার বন্ধু ও হলের শিক্ষার্থীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায়। সেখানে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।’

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, পলাশের মরদেহ বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ঢামেক হাসপাতাল থেকে ঢাবির সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে নেওয়া হয়। সেখানে জানাজা শেষে তার মরদেহ নেওয়া হবে গ্রামের বাড়ি জামালপুরে।

  • সর্বশেষ - শিক্ষাঙ্গন