, ২১ আশ্বিন ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় যুবককে অ্যাসিড নিক্ষেপ, মা-মেয়ের যাবজ্জীবন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় যুবককে অ্যাসিড নিক্ষেপ, মা-মেয়ের যাবজ্জীবন

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় বিয়ের প্রস্তাব না মানায় এক যুবককে অ্যাসিড নিক্ষেপের ঘটনায় ২৭ বছর পর দুই আসামি মা-মেয়েকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১ জুন) দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ আদালতের তৃতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ফেরদৌস ওয়াহিদের আদালত এ রায় দেন।

দণ্ডিতরা হলেন- মাসুমা খাতুন ও তার মেয়ে মোস্তফা বেগম। রায়ে বিচারক প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করেন। অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) লোকমান হোসেন চৌধুরী জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৫ সালের ২২ জুলাই চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার পদুয়ার হালুয়ারছড়ি এলাকায় নুরুল আবসারকে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে শরীরে অ্যাসিড নিক্ষেপ করে চোখ, মুখ, বুক ঝলসে দেওয়া হয়। ওই ঘটনায় নুরুল আবসারের বাবা নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানায় মামলা করেন। ঘটনার পরপরই মোস্তফা বেগম ও তার মা মাসুমা খাতুনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলায় পুলিশ জানতে পারে, হালুয়ারছড়ি গ্রামের মোস্তফা বেগমের সঙ্গে নুরুল আবসারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এক পর্যায়ে মোস্তফার পরিবার থেকে আবসারকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু আবসারের পরিবার বিয়েতে সম্মতি দেয়নি। মোস্তফার সঙ্গে বিয়ে না দিয়ে ছেলেকে দেশের বাইরে পাঠিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নেয়। বিষয়টি জানতে পেরে দুই আসামি আবসারকে অ্যাসিড মারার পরিকল্পনা করেন।

মামলার তদন্ত শেষে ১৯৯৬ সালের ৫ জানুয়ারি মা-মেয়ের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ। ১৯৯৯ সালের ৮ ডিসেম্বর মা-মেয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলার বিচারে ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

  • সর্বশেষ - অন্যান্য