, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

স্বজনদের আগুন দেখানোর সময় বিস্ফোরণ, হাসপাতালে মিললো মরদেহ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

স্বজনদের আগুন দেখানোর সময় বিস্ফোরণ, হাসপাতালে মিললো মরদেহ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতদের দুজনের বাড়ি ফেনী বলে স্বজনরা নিশ্চিত করেছেন। এদের মধ্যে একজন ফায়ার সার্ভিসের সদস্য সালাউদ্দিন সবুজ (৩০) ও অন্যজন কনটেইনার ডিপোর ইনচার্জ শাহাদাত হোসেন মজুমদার (৩৫)।

এছাড়াও ঘটনার পর থেকে ওই ডিপোর গাড়িচালক মো. ইয়াছিনের কোনো সন্ধান পাচ্ছেন না পরিবারের সদস্যরা।

ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার আহম্মদ মুন্সি বলেন, সালাউদ্দিন সবুজের বাড়ি ধলিয়া ইউনিয়নে। সবুজ ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের হাজী অছিম উদ্দিন ভূঁইয়া বাড়ির মাস্টার মোহাম্মদ ইউসুফের ছেলে। তিনি সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন৷ শনাক্তের পর স্বজনরা মরদেহ গ্রহণের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেছেন।

এদিকে ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল আলিম জানান, সীতাকুণ্ডের ঘটনায় শাহাদাত হোসেন মজুমদার নামের ফুলগাজী এক যুবক নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের দুলাল মজুমদারের ছেলে৷ ওই ডিপোর শিফট ইনচার্জ ছিলেন তিনি।

স্বজনদের আগুন দেখানোর সময় বিস্ফোরণ, হাসপাতালে মিললো মরদেহনিহত সালাউদ্দিন সবুজ

নিহতের চাচাতো ভাই সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার জানান, অগ্নিকাণ্ডের সময় শাহাদাত ঘটনাস্থল থেকে ভিডিও কলে স্বজনদের আগুনের ভয়াবহতা দেখানোর সময় হঠাৎ বিস্ফোরণ হয়। এরপর তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। পরে তার মামা চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট কলেজের প্রফেসর দিদারুল আলম মজুমদার হাসপাতালে গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করেন৷

এছাড়াও ঘটনার পর হতে বিএম ডিপোতে কর্মরত গাড়িচালক ফুলগাজী উপজেলার গোসাইপুরের বাসিন্দা ইয়াছিনের সন্ধান পাচ্ছেন না বলে স্বজনরা জানিয়েছেন।

  • সর্বশেষ - আলোচিত খবর