, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

গোল করেও পিছিয়ে থেকে বিরতিতে বাংলাদেশ

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

গোল করেও পিছিয়ে থেকে বিরতিতে বাংলাদেশ

বুকিত জলিল স্টেডিয়ামে দুর্দান্ত এক প্রথামার্ধ গেল। স্বাগতিক মালয়েশিয়া প্রাধান্য বিস্তার করলেও বাংলাদেশ লড়াই করার চেষ্টা করেছে। ৪৫ মিনিট শেষে স্কোরলাইন ২-১। 

ম্যাচের শুরু থেকে প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে মালয়েশিয়া। ১০ মিনিটের মধ্যেই নিশ্চিত গোলের সুযোগ তৈরি করে। গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো একটি নিশ্চিত গোল সেভ করেন আরেকটি বল ক্রসবারে লাগে। ১৬ মিনিটে রেফারির এক সিদ্ধান্ত বাংলাদেশকে পেছনে ঠেলে দেয়। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদ বক্সের মধ্যে বল ক্লিয়ার করেন। রেফারি সেটিকে ফাউল ভেবে পেনাল্টির নির্দেশ দেন। মালয়েশিয়ার সাফাই রসিদ পেনাল্টি থেকে গোল করেন। জিকো বলের দিকেই ডাইভ দিয়েছিলেন। তার হাত ছুঁয়ে বল জালে জড়ায়।

পিছিয়ে পড়লেও বাংলাদেশ ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করেছে বেশ। ৩১ মিনিটে ম্যাচে সমতাও ফেরায়। গোলের অ্যাকশন আগের ম্যাচের মতোই। বিশ্বনাথ ঘোষের লম্বা থ্রো রাকিবের ব্যাক হেড এবং ইব্রাহিমের হেডে বল জালে। এই গোলে বুকিত জলিলের মালয়েশিয়ান অর্ধ লক্ষাধিক দর্শক স্তব্ধ। হাজার জনেক বাংলাদেশ দর্শকদের উল্লাস। 

এই উল্লাস বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। সাত মিনিট পর ডিয়ন কুলস আবার স্বাগতিকদের লিড এনে দেন। ডিলনের নেয়া দূর থেকে শট জিকোর হাতের নিচ দিয়ে যায়। জিকো একটু পরে ডাইভ দিয়েছেন। এই গোলে জিকোর কিছুটা দায় থাকলেও প্রথমার্ধে বাংলাদেশ যে ম্যাচে টিকে আছে এর পুরো কৃতিত্ব জিকোর। তার দুর্দান্ত কয়েকটি সেভে বাংলাদেশ নিশ্চিত গোল থেকে রক্ষা পেয়েছে।

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা