, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

আপনার স্বামী অন্য নারীকে ভালোবাসে কিনা বুঝবেন যেভাবে

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

  প্রকাশ : 

আপনার স্বামী অন্য নারীকে ভালোবাসে কিনা বুঝবেন যেভাবে

বেশিরভাগ বিবাহিত নারীর ভেতর এই ভয় কাজ করে যে, তার স্বামী হয়তো অন্য কোনো নারীকে গোপনে ভালোবাসে! এটি যে সব সময় অহেতুক প্রমাণিত হয়, তা কিন্ত নয়। কারণ এমন ঘটনা অনেক দেখতে পাওয়া যায় যে স্বামী অন্য নারীর সঙ্গে সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে যায় এবং স্ত্রীর সঙ্গে প্রতারণা করে। আপনার যদি কোনো কারণে মনে হয় যে আপনার স্বামী আপনার সঙ্গে প্রতারণা করছেন, তাহলে কিছু বিষয়ের প্রতি নজর দিন। কিছু লক্ষণ দেখলে আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন যে আপনার স্বামী অন্য নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে গেছেন-

শুধু অন্য নারীর সামনেই কোমল ব্যক্তিত্ব

এমনিতে আপনার স্বামীর স্বভাব হয়তো বদ মেজাজি কিন্তু অন্য নারীর সামনে থাকাকালীন তিনি কমনীয় ব্যক্তিত্ব বজায় রাখেন। আপনার সঙ্গে দাঁত খিচিয়ে কথা বললেও অন্য নারীর সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলেন, তাদের সুখে-দুখে সহানুভূতি জানাতে চান। এমনটা হলে সতর্ক হোন। হতে পারে তিনি অন্য নারীর প্রতি আকৃষ্ট বা তার প্রেমে ডুবে আছেন। আপনার পাশে থাকাকালীন যদি একই রকম ভালোবাসা এবং স্নেহ অনুভব না করেন, তাহলে কিছু সমস্যা তো রয়েছেই।

প্রশংসার পরিমাণ বৃদ্ধি পায়

আপনি লক্ষ্য করবেন যে আপনার স্বামী কোনো নারীর বিষয়ে হঠাৎ অনেক প্রশংসা করতে শুরু করেছেন। তার আচরণে এই আকস্মিক পরিবর্তন হলো এটি সনাক্ত করার একটি উপায় যে তিনি সত্যিই অন্য নারীর প্রেমে পড়েছেন। যে কারণে তার চোখে সেই নারীর সবকিছুই ভালোলাগছে।

সবসময় তার ফোনে থাকেন

আপনি হয়তো লক্ষ্য করবেন যে, আপনার স্বামী তার ফোনে চ্যাট করছেন বা সারাক্ষণ টেক্সট করছেন। তার ফোনের প্রতি তার আকস্মিক আকর্ষণ একটি ইঙ্গিত দেয় যে তিনি অন্য নারীর প্রতি বেশি আকৃষ্ট, সেইসঙ্গে তিনি আপনার সঙ্গে প্রতারণা করে যাচ্ছেন।

তিনি আপনাকে অন্যদের সঙ্গে তুলনা করছেন

যখন আপনার স্বামী আপনাকে অন্যদের সঙ্গে বা প্রধানত অন্য নারীর সঙ্গে তুলনা করতে শুরু করেন, তখন এটি স্পষ্ট হয় যে তিনি অন্য নারীর প্রতি আকৃষ্ট, যার সঙ্গে তিনি আপনার তুলনা করছেন। তিনি সরাসরি আপনার সঙ্গে তার তুলনা না-ও করতে পারেন, কিন্তু তিনি ইঙ্গিত দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

তার লক্ষণীয় শারীরিক ভাষা

যখন আপনার স্বামী অন্য নারীর সঙ্গে প্রেম করেন, তখন তার শারীরিক ভাষা তার অনুভূতিকে ব্যক্ত করে। তিনি আপনার থেকে দূরে থাকতে পারেন এবং বাইরে আরও বেশি সময় কাটাতে আগ্রহী হতে পারেন। হয়তো বলছেন যে তিনি আপনার সঙ্গে সময় কাটাতে চান কিন্তু কাজের ভীষণ ব্যস্ততা, অপরদিকে সেই সময়টা তিনি অন্য নারীকে দিতে পারেন। তবে কেবল সন্দেহের ভিত্তিতে কোনো সিদ্ধান্ত নেবেন না। অস্বাভাবিক কিছু চোখে পড়লে আগে ভালোভাবে খোঁজ নিন। এরপর সমস্যা ধরা পড়লে সমাধানের দিকে যান।

  • সর্বশেষ - লাইফ স্টাইল