, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

পদ্মা সেতুতে যান চলাচল স্বাভাবিক

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

পদ্মা সেতুতে যান চলাচল স্বাভাবিক

পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচলের তৃতীয় দিন ছিল আজ মঙ্গলবার (২৮ জুন)। এ দিন যানবাহন স্বাচ্ছন্দে নির্ধারিত টোল দিয়ে সেতু পার হতে পেরেছে। এ দিনও সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ ছিল।

এ দিন মাওয়া প্রান্তের টোল প্লাজা থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে চেক পোস্ট বসানো হয়। যেতে সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ, তাই এখান থেকে ভাড়া করা পিকআপ ভ্যানে মোটরসাইকেল তোলা হয় এবং সেতুর পার করে অপরপ্রান্তে নিয়ে যাওয়া হয়।

পিকআপ ভ্যানে করে পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে চালকদের গুনতে হচ্ছে ১ থেকে ২ হাজার টাকা।

সকালের দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের টোল প্লাজা অনেকটাই ফাঁকা ছিল। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সংখ্যা বাড়লেও টোল প্লাজায় যানজট অথবা যানবাহনকে অপেক্ষায় থাকতে দেখা যায়নি। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রতিনিয়ত মাইকিং করছে ও সেতুতে টহল দিচ্ছে।

মাওয়া টোল প্লাজায় দায়িত্বরত বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন বলেন, পিকআপ ভ্যানে করে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল পারাপার হচ্ছে। পিকআপ ভ্যানে মোটরসাইকেল কাপড় বা কোনো কিছু দিয়ে ঢেকে পার করা হলে সেটি পণ্যবাহী গাড়ি হিসেবে ধরা হয় এবং নিয়ম অনুযায়ী পিকআপের টোল নেওয়া হয়।

তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরও বলেন, বাস, ট্রাক, প্রাইভেটকারসহ অন্যান্য ভারী যানবাহন যথারীতি পারাপার হচ্ছে। বর্তমানে গাড়ির চাপ নেই বা যানজটও নেই মাওয়া প্রান্তে।

পদ্মা সেতুতে গাড়ি থেকে নামলে, ছবি তুললে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে টোল প্লাজায় মাইকিং করা হচ্ছে।

মোটরসাইকেল চালকরা অভিযোগ করেন, পিকআপ ভ্যানে মোটরসাইকেল সংশ্লিষ্ট কাউকে সঙ্গে যেতে দিচ্ছে না। এতে চুরির ভয় থাকে। এতে তাদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।

লৌহজং উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইলিয়াস হোসেন জানান, সকাল থেকে সেতুতে ঠিকঠাক মতো যানবাহন পারাপার হচ্ছে। মূলত মোটরসাইকেলের কারণে সেতুতে যানজট ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। মোটরসাইকেল চলাচল এখন নেই। সেই জন্য সুশৃঙ্খলভাবে গাড়ি চলাচল করছে।

পুলিশের একাধিক টিম সার্বক্ষণিক টহলে রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা লাগেনি বলে জানান তিনি।

পদ্মা সেতু ইঞ্জিনিয়ারিং সাপোর্ট ও সেফটি টিমের সমন্বয়ক লে. কর্নেল মো. রবিউল আলম বলেন, পদ্মা সেতু দেশের সম্পদ। এ সেতুর ওপর যানবাহন থামানো ও যানবাহন থেকে নামা বন্ধ করতে হবে।

রোববার (২৬ জুন) সকালে যান চলাচলের জন্য পদ্মা সেতু খুলে দেওয়া হলে দিনভর মোটরসাইকেল চালকদের নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের ফলে পরের দিন সকাল থেকে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করে সেতু বিভাগ।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ