, ২১ আশ্বিন ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

দিনাজপুরে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে ‘খাইট্টা’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

দিনাজপুরে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে ‘খাইট্টা’

দিনাজপুরে কোরবানির পশু কাটার জন্য চাকু-ছুরির পাশাপাশি খাইট্টা (গাছের গুঁড়ি) কেনার হিড়িক পড়েছে। করোনার প্রভাবে গত দুই বছর ‘খাইট্টা’ কেনাবেচা কম হলেও এবার বেড়েছ। কেজিপ্রতি ২৫-৩০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে প্রতিটি ‘খাইট্টা’।

স্থানীয়রা জানান, সাধারণত তেঁতুল ও বেল গাছের কাঠ দিয়ে তৈরি হয় ‘খাইট্টা’। এলাকাভেদে এটি ‘কাটলি’, ‘খুটা’, ‘ডুম’ ইত্যাদি নামে পরিচিত। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে এর চাহিদা বেড়েছে। দিনাজপুরের সবখানে বিক্রি বিক্রি হচ্ছে।

আশরাফুল ইসলাম নামের এক বিক্রেতা জানান, একটা খাইট্টা অনেক দিন চলে। সব সময় এটি বিক্রি হয় না। সাধারণত স্থানীয় কসাইরা এর মূল ক্রেতা। কিন্তু প্রতি বছর কোরবানির ঈদে চাহিদা বাড়ে। কাঠভেদে এটির দামের ভিন্নতা রয়েছে। তবে দিনাজপুরে তেঁতুল ও বেল গাছের খাইট্টাই বেশি পাওয়া যায়।

রাকিব নামের আরেক বিক্রেতা জানান, ঈদকে সামনে রেখে আমরা বিভিন্ন এলাকা ঘুরে তেঁতুল ও বেলগাছ কিনে করাত দিয়ে কেটে ‘খাইট্টা’ তৈরি করি। বাজারে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আকার-আকৃতি অনুযায়ী একেকটি খাইট্টার ওজন ৫-২০ কেজি পর্যন্ত হয়।

পুলহাট এলাকার বিক্রেতা আবুল কাশেম বলেন, এবার কেনাবেচা ভাল। ২৫-৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছেন। তবে তেঁতুল ও বেল গাছের সংকট থাকায় চাহিদা অনুযায়ী ‘খাইট্টা’ প্রস্তুত করা সম্ভব হয় না।

  • সর্বশেষ - আলোচিত খবর