, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

নারীর চেয়ে পুরুষরা কেন ত্বকের ক্যানসারের বেশি ভোগেন?

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

  প্রকাশ : 

নারীর চেয়ে পুরুষরা কেন ত্বকের ক্যানসারের বেশি ভোগেন?

স্কিন বা ত্বকের ক্যানসারে আক্রান্তের সংখ্যা বর্তমানে বিশ্বব্যাপী বাড়ছে। ত্বকের কোষের অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে ত্বকের ক্যানসার হয়। যা বেশিরভাগই সূর্যের সংস্পর্শে থাকার কারণে বিকশিত হয়।

তবে সূর্যের আলো পড়ে না ত্বকের এমন স্থানেও হতে পারে ক্যানসার। ত্বকের ক্যানসারের তিনটি প্রধান প্রকারের মধ্যে আছে বেসাল সেল কার্সিনোমা, স্কোয়ামাস সেল কার্সিনোমা ও মেলানোমা।

মেলানোমা হলো সবচেয়ে আক্রমণাত্মক ত্বকের ক্যানসার। এতেই মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি। জানলে অবাক হবেন, নারীর চেয়ে পুরুষদের মধ্যে মেলানোমা ক্যানসারের ঝুঁকি বেশি।

jagonews24

সিডিসি (রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের) সাম্প্রতিক তথ্যে জানা গেছে, পুরুষদের মেলানোমায় মারা যাওয়ার ঝুঁকি নারীদের চেয়ে বেশি।

২০১২ থেকে ২০১৬ সালের তথ্য অনুসারে, প্রতি বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মেলানোমার প্রায় ৭৭ হাজার ৬৯৮ জন মেলানোমা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৪৫ হাজার ৮৫৪ জন পুরুষ ও ৩১ হাজার ৮৪৫ জন নারী।

ত্বকের ক্যানসারের সর্বোচ্চ হার শ্বেতাঙ্গ পুরুষদের মধ্যে (৩৪.৯ প্রতি ১ লাখ) ও সর্বনিম্ন হার ছিল কালো নারীদের মধ্যে (০.৯ প্রতি ১ লাখ)। জানা যায়, নারীদের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি পুরুষরা মেলানোমা ক্যানসারে মারা যায়

পুরুষদের মেলানোমা হওয়ার ঝুঁকি বেশি হওয়ার সঠিক কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত না হলেও, বেশ কিছু কারণ থাকতে পারে বলে ধারণা করেন বিশেষজ্ঞরা-

ক্যানসার গবেষণা ইউকে’র এক জরিপে দেখা গেছে, পুরুষদের মাত্র এক চতুর্থাংশেরও কম সূর্য থেকে নিজেদের রক্ষা করে। এক চতুর্থাংশ পুরুষ জানিয়েছেন তারা সূর্য থেকে সুরক্ষিত থাকার বিষয়ে কোনো নিয়মই মানেন না।

আমেরিকান একাডেমি অব ডার্মাটোলজি জার্নালের একটি গবেষণা অনুসারে, পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন। অন্যদিকে পুরুষরা সানস্ক্রিনও কম ব্যবহার করেন, ফলে মেলানোমা ক্যানসারের হারও বেশি।

এছাড়া পুরুষদের ত্বকের নিচে কম চর্বিযুক্ত ঘন ত্বক থাকে, আবর নারীদের তুলনায় তাদের ত্বকে কোলাজেন বেশি থাকে। গবেষণা দেখায় গেছে, একই পরিমাণ ইউভি সূর্যালোক নারীদের তুলনায় পুরুষদের ত্বককে বেশি ক্ষতি করে।

গবেষণায় আরও দেখা গেছে, উচ্চতর ইস্ট্রোজেনের মাত্রা মেলানোমাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এ কারণে নারীদের মধ্যে ত্বকের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার হার কম। বিজ্ঞানীরা আরও দেখেছেন, স্থূলকায় পুরুষদেরও উচ্চ মাত্রার ইস্ট্রোজেন থাকার ঝুঁকি আছে।

jagonews24

বেশিরভাগ ত্বকের ক্যানসারেরই কোনো উপসর্গ থাকে না। এক্ষেত্রে অস্বাভাবিক তিল বা দাগ দেখা দিতে পারে। পুরুষদের মধ্যে বেশিরভাগ মেলানোমা কাঁধ বা পিছনের মতো জায়গায় হয়।

এসব তিল বা দাগ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বড় হলে কিংবা চুলকানি, ব্যথা বা রক্তপাত ঘটলে অবশ্যই দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হরে। না হলে বাড়বে মৃত্যুঝুঁকি।

চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেছেন, ত্বকের ক্যানসারে আক্রান্ত বেশিরভাগ রোগীই ক্ষত স্থানে আলসার বা রক্তপাত হলেই তাদের কাছে যান। তখন খুব দেরি হয়ে যায়।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

  • সর্বশেষ - লাইফ স্টাইল