ময়মনসিংহ, , ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

ইকুয়েডরে মর্গে জায়গা নেই, মরদেহ রাখা হচ্ছে ফ্রিজে

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

ইকুয়েডরে মর্গে জায়গা নেই, মরদেহ রাখা হচ্ছে ফ্রিজে
ইকুয়েডরে মরদেহ ফ্রিজে রাখা হচ্ছে।

মর্গে জায়গা না হওয়ায় বাধ্য হয়ে করোনায় আক্রান্তদের মরদেহ বিশাল আকারের ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে ইকুয়েডর সরকার। শনিবার ল্যাটিন আমেরিকার দেশটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়।

এর আগে বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইকুয়েডরের সবচেয়ে জনবহুল শহর গুয়াইয়াকিল রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে মরদেহ । আর এরপরই ইকুয়েডর সরকারের পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হলো।

ইকুয়েডরে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে সরকারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মারা গেছেন ৩১৮ জন। যা দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি। কিন্তু দেশটির প্রেসিডেন্ট লেনিন মরেনো বলেছেন, প্রকৃতপক্ষে কর্তৃপক্ষ যা বলছে মৃতের সংখ্যা এর চেয়ে অনেক বেশি। তিনি জানান, প্রতিদিন ১০০টির বেশি মরদেহ সংগ্রহ করা হচ্ছে এবং সেগুলোকে সংরক্ষণ করে কবর দেয়ায় হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট লেনিন মরেনোর ধারণা, ইকুয়েডরের জনবহুল গুয়াইয়াকিল শহরে প্রায় সাড়ে তিনহাজার মানুষ করোনায় মারা গেছেন।

গুয়াইয়াকিলের মেয়র সিনথিয়া ভিটেরি জানান, সরকার শহরটিতে ১২ মিটারের তিনটি কন্টেইনার স্থাপন করেছে। যেখানে তারা মরদেহ সংরক্ষণ করছে।

এদিকে মৃতের আত্মীয়রা যাতে সহজে জানতে পারে যে তাদের আত্মীয়দের কোথায় কবর দেয়া হয়েছে সেজন্য একটি ডিজিটাল ব্যবস্থা চালু করা হবে বলে জানিয়েছে ইকুয়েডর সরকার।

  • সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক