, ১১ আশ্বিন ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

‘বিনিয়োগ শিক্ষা বিভাগীয় থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে নেওয়া হবে’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

‘বিনিয়োগ শিক্ষা বিভাগীয় থেকে বিভিন্ন পর্যায়ে নেওয়া হবে’

পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘বিনিয়োগ শিক্ষার এ কার্যক্রম শুধু বিভাগীয় পর্যায়ে নয়, দেশের বিভিন্ন পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হবে। আমাদের দেশে যে বিনিয়োগের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে সেটাকে কাজে লাগাতে হবে।’

শনিবার (৩০ জুলাই) ময়মনসিংহের টাউন হলে অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এবং বাংলাদেশ একাডেমি ফর সিকিউরিটিজ মার্কেটের (বিএএসএম) উদ্যোগে আয়োজিত দুই দিনের বিনিয়োগ শিক্ষা মেলার সমাপনী দিনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালেদ। 

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করছেন বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, বিনিয়োগ শিক্ষা কার্যক্রম ২০১৭ সালে ৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এটার উদ্বোধন করেছেন। সে যাত্রাটির কর্তব্য অংশটি আজ আমরা সম্পাদন করতে পারছি। বিনিয়োগ শিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে অন্যান্য বিভাগের এ ধরনের কার্যক্রম আমরা সম্পন্ন করেছিলাম। তবে করোনার কারণ ময়মনসিংহ বিভাগে এটা করার সম্ভব হয়নি, আজ সম্পন্ন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বিনিয়োগ শিক্ষার তিনটি ডাইমেনশন রয়েছে। এর মধ্যে একটি জ্ঞান অর্জন, দ্বিতীয়টি জ্ঞানভিত্তিক আচরণ ও তৃতীয়টি জ্ঞানের মনোভাব। এই তিনটি ডাইমেনশনকে ব্যবহার করে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করতে হবে। তবে আমরা প্রয়ই দেখতে পাচ্ছি, বিভিন্ন ধরনের গুজব, রটনা, মিথ্যা ও অসত্য তথ্যের কারণে আমরা বিনিয়োগের সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। এটি বিনিয়োগের জন্য কল্যাণকর নয়।

বিএসইসির কমিশনার বলেন, আমাদের নেতৃত্ব, আমাদের সিদ্ধান্ত, আমাদের পথচলার যে চিন্তা ভাবনাগুলোকে সাথে নিয়ে বিনিয়োগকারী আরো সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বিএসইসি এবং তার দুইটি অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ একাডেমি ফার সিকিউরিটিজ মার্কেটস (বিএএসএম), বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট ফর ক্যাপিটাল মার্কেট (বিআইসিএম) ও ফাইন্যান্সিয়াল লিটেরেসি ডিপার্টমেন্ট আপনাদেরকে সমৃদ্ধভাবে যে কোনো জ্ঞান অর্জনের ক্ষেত্রে সদা প্রস্তুত রয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন—ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. তারিক আমিন ভুঁইয়া, বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান, বাংলাদেশ একাডেমি ফর সিকিউরিটিজ মার্কেটের (বিএএসএম) মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমেদ, রশীদ ইনভেস্টমেন্ট সার্ভিসেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ডিবিএর সাবেক সভাপতি আহমেদ রশীদ লালী, বিএসইসির বিনিয়োগ শিক্ষা বিভাগের নির্বাহী পরিচালক রিপন কুমার দেবনাথ, ডিবিএ সভাপতি রিচার্ড ডি রোজারিও।

  • সর্বশেষ - অর্থ-বাণিজ্য