, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

আমার কিছু হলে নানা পাটেকর দায়ী: তনুশ্রী দত্ত

  বিনোদন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

আমার কিছু হলে নানা পাটেকর দায়ী: তনুশ্রী দত্ত

বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। দীর্ঘদিন শোবিজ থেকে দূরে ছিলেন। পরে প্রবীণ অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে শুটিং সেটে হেনস্তার অভিযোগ করে আবারো আলোচনায় আসেন। তার এই অভিযোগের পরই বলিউডে 'মি টু' আন্দোলন শুরু হয়।

এদিকে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি পোস্টে তনুশ্রী দত্ত দাবি করেছেন, তাকে হত্যার পরিকল্পনা চলছে এবং তার খাবারে বিষ মেশানো হয়। এবার এই অভিনেত্রী জানালেন, তার কিছু হলে দায়ী থাকবেন অভিনেতা নানা পাটেকর।

ফটো ও ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইন্সটাগ্রামে একটি পোস্ট করেছেন 'আশিক বানায়া আপনে' সিনেমা খ্যাত এই নায়িকা। এতে তিনি লিখেছেন,  “যদি আমার কোনোদিন কিছু হয়ে যায় তবে জানবেন 'মিটু'-তে অভিযুক্ত নানা পাটেকর, তার আইনজীবী ও বলিউডে তার মাফিয়া বন্ধুরাই এর পিছনে দায়ী। তাদের সিনেমা দেখবেন না। তাদের বয়কট করুন। যারা যারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা খবর ছাপিয়েছে, মিথ্যা কথা রটিয়েছে, মিথ্যা প্রচার চালিয়েছে তাদের সবার জীবন নরক বানিয়ে দিন। কারণ তারা আমার জীবন তছনছ করে দিয়েছে। এই আইন ব্যর্থ কিন্তু আমাদের এই দেশের মানুষের ওপর আস্থা আছে। জয় হিন্দ। বাই। আবার দেখা হবে।”

বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। ২০০৫ সালে ‘আশিক বানায়া আপনে’ সিনেমার মাধ্যমে হিন্দি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছেন। এরপর ‘চকোলেট’, ‘ভাগাম ভাগ’, ‘রাকীব’, ‘ঢোল’, ‘গুড বয় ব্যাড বয়’, ‘অ্যাপার্টমেন্ট’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন।

তনুশ্রী ২০১৮ সালে অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুললে বলিউডে ‘মি টু’ আন্দোলন জোরাল হয়। অনেকেই বলিউডে তাদের তিক্ত অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে শুরু করেন। তনুশ্রী অভিযোগ করেন, ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ সিনেমার একটি গানে নানা পাটেকর তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছেন। এতে তিনি এতটাই অস্বস্তিবোধ করেছিলেন যে গানটি থেকে তাকে বেরিয়ে যেতে হয়। যদিও এ অভিযোগ অস্বীকার করেন নানা পাটেকর। এ বিষয়ে মামলায় ক্লিনচিট পান এই অভিনেতা।

  • সর্বশেষ - বিনোদন