, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

রাতভর মদ্যপান করে সকালে রানের ফোয়ারা ছোটাতেন তিনি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

রাতভর মদ্যপান করে সকালে রানের ফোয়ারা ছোটাতেন তিনি

ভারতীয় ক্রিকেটে বিনোদ কাম্বলির মতো চরিত্র কমই আছে। উশৃঙ্খল জীবনযাপন করে সম্ভাবনাময় ক্রিকেট ক্যারিয়ার নিজ হাতে ধ্বংস করেছেন। অথচ ভারতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান হওয়ার সুযোগ ছিল তার, প্রতিভার বিচারে অর্জনের দিক দিয়ে তার বাল্যবন্ধু শচীন টেন্ডুলকারকেও ছাড়িয়ে যেতে পারতেন, এমনটাই মনে করেন ভারতের ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

সম্প্রতি নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের  এক অজানা ঘটনা প্রকাশ্যে এনে ক্রিকেটপ্রেমীদের চমকে দিয়েছেন কাম্বলি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মিড-ডে’র সঙ্গে আলাপচারিতায় কাম্বলি জানালেন, আগের রাতে ১০ পেগ মদ্যপান করে পরের দিন শতরানের ইনিংস খেলার কীর্তি রয়েছে তার। তবে এখন মদ্যপান ছেড়ে দিতেও আপত্তি নেই তার, ‘একটা নিয়ম-কানুন রয়েছে, যেটা সবাইকে মেনে চলতে হয়। যদি এমন নিয়ম থাকে যেটা তোমাকে নির্দিষ্ট একটা জিনিস করতে নিষেধ করে তবে সেটা মেনে চলাই উচিত। আমি মদ্যপান করাই তৎক্ষণাৎ ছেড়ে দেব যদি আমাকে সেটা করতে বলা হয়। আমার কোনও সমস্যা নেই। সত্যি বলতে আমি এই মুহূর্তে একজন সোশ্যাল ড্রিঙ্কার। কে পান করে না বলুন তো?’

সপ্তাহ দুয়েক আগে অর্থাভাবে সংসার চালাতে হিমশিম খাওয়ার কথা সংবাদমাধ্যমকে জানয়েছিলেন কাম্বলি। অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটারদের বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া ৩০ হাজার রুপি পেনশন দেওয়া হয়, তবে মুম্বাইয়ের মতো ব্যয় বহুল সেটা দিয়ে পরিবারসহ টিকে থাকা প্রায় অসম্ভব। এই বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে অবহিত করে একটি চাকরির আবদার রেখেছিলেন। চাকরির জন্য যদি তাকে মদ্যপান ছেড়ে দিতে হয় সেটা করতেও তিনি প্রস্তুত বলে জানিয়েছিলেন।

dhakapost
শচীনের সঙ্গে কাম্বলি

শোনা যায়, খেলোয়াড়ি জীবনে একবার ম্যাচের আগের রাতে ১০ পেগ মদ পান করেছিলেন বিনোদ কাম্বলি। কোচ ভেবেছিলেন হয়ত ঘুম থেকেই উঠতে পারবেন না তিনি। তবে সবাইকে ভুল প্রমাণ করে তিনি সেই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত সেঞ্চুরি করেছিলেন।

টেস্টে ভারতের হয়ে সবচেয়ে কমবয়সী ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডটি এখনো কাম্বলির দখলে। ১৯৯৩ সালে মাত্র ২১ বছর ৩২ দিনে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের হয়ে টেস্টে সেই মাইলফলক স্পর্শ করেছিলেন তিনি।

১৯৯১ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল কাম্বলির। ক্যারিয়ারে মাত্র ১০টি টেস্ট খেলা কাম্বলি ২৪ বছর বয়সে খেলেন সাদা পোশাকে নিজের শেষ ম্যাচ। ওই কয়টি ম্যাচ খেলেই ৫৪ গড়ে করেছিলেন ১,০৮৪ রান। অন্যদিকে ১০৪ ওয়ানডে খেলে ২,৪৭৭ করেছিলেন এই ব্যাটসম্যান।

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা