, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

এলডিসি উত্তরণের পরও যুক্তরাজ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

এলডিসি উত্তরণের পরও যুক্তরাজ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে বাংলাদেশ

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে উত্তরণের পরও যুক্তরাজ্যের বাজারে বাংলাদেশের পণ্য প্রবেশে শুল্কমুক্ত সুবিধা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন।

সোমবার (২২ আগস্ট) ‘মিট দ্য অ্যাম্বাসেডর’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠনের বিজিএমইএর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিমের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। ফ্রেডরিখ-এবার্ট-স্টিফটাং বাংলাদেশের সহযোগিতায় সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজ (সিজিএস) অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা, ব্যবসায়ী, অর্থনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ ও সাংবাদিকসহ অংশীজনদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

চ্যাটারটন ডিকসন জানান, ব্রিটিশ সরকার বিদ্যমান জিএসপি ব্যবস্থার স্থলে ‘ডেভেলপিং কান্ট্রিজ ট্রেডিং স্কিম’ নামে একটি নতুন স্কিম ঘোষণা করেছে। নতুন স্কিম অনুযায়ী এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পর বাংলাদেশের ৯৮ শতাংশ পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধা পাওয়ার যোগ্য হবে।

শহিদউল্লাহ আজিম বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম রপ্তানি গন্তব্যস্থল। গত ২০২১-২২ অর্থবছরে যুক্তরাজ্যে ৪ দশমিক ৪৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পোশাক রপ্তানি হয়েছে এবং গত কয়েক দশক ধরে দেশ দুটির মধ্যে দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক সম্পর্ক উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তিনি নতুন স্কিমের জন্য ব্রিটিশ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এটি বাংলাদেশকে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাণিজ্য বাড়াতে সহায়তা করবে।

তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, বাংলাদেশের উন্নয়নে ব্রিটিশ সরকারের বন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতা আগামী বছরগুলোতেও অব্যাহত থাকবে ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজের চেয়ারম্যান ড. মঞ্জুর এ চৌধুরী, নির্বাহী পরিচালক জিল্লুর রহমান এবং ফ্রেডরিখ-এবার্ট-স্টিফটাং বাংলাদেশের প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর সাধন কুমার দাস।

  • সর্বশেষ - অর্থ-বাণিজ্য