, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

সাকিবকে ‌‘ক্লাসের দুষ্ট ছেলে’ বললেন অজয় জাদেজা

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

সাকিবকে ‌‘ক্লাসের দুষ্ট ছেলে’ বললেন অজয় জাদেজা

সাকিব আল হাসান যেন আলোচনায় থাকতে পছন্দ করেন। বিতর্ক তাই কখনও তার পিছু ছাড়েনি। সাকিবের মানের একজন অলরাউন্ডারকে নিয়ে তাই মাঠের আলোচনা যতটা হওয়ার কথা, তার চেয়ে বেশি আলোচনা মাঠের বাইরের ঘটনা নিয়ে।

চলছে এশিয়া কাপ। নানা নাটকীয়তার পর এই সাকিবকেই টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যদিও শুরুটা ভালো হয়নি এবারের আসরে।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরে আফগানিস্তানের কাছে হেরে গেছে বাংলাদেশ। সুপার ফোরে নাম লেখাতে হলে এখন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয়ের বিকল্প নেই।

এই ম্যাচের আগে ক্রিকবাজের এক অনুষ্ঠানে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন সাকিব। পোস্ট ম্যাচ শোতে অজয় জাদেজা-পার্থিব প্যাটেল মিলে বাংলাদেশ দলের খুঁটিনাটি পর্যালোচনা করেন। তাতে চলে আসে সাকিব প্রসঙ্গ।

সাকিবকে নিয়ে ঝামেলা লেগেই থাকে। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক গৌরব কাপুর এক পর্যায়ে অজয় জাদেজাকে প্রশ্ন করেন, ‘সাকিব কি বাংলাদেশ ক্রিকেটের ‘প্রবলেম চাইল্ড’?

সঞ্চালকের এমন প্রশ্নের জবাবে জাদেজা বলেন, ‘এটা তো স্বাভাবিক, সে যদি সাধারণ কোনো বাচ্চা হতো তাহলে সে সাধারণ একজন ক্রিকেটার হতো। ওকে ভিন্নভাবে চিন্তা করতে হয়, ভিন্নভাবে কাজ করতে হয়। এমনটা হবেই। এখানে অনেকসময় বাচ্চাকে বুঝতে হবে বাবা-মা’ই (বোর্ড) আসল বস। অথবা তাকে বাড়ি ছেড়ে নিজের মতো করে জীবনযাপন করতে হবে। এক্ষেত্রে এটা সম্ভব না, কারণ আপনি যখন দেশের হয়ে খেলবেন তখন বোর্ডের অধীনে আপনাকে থাকতে হবে। আপনাকে এটা বুঝতে হবে।’

সাকিবের সঙ্গে বোর্ডের নানা ঝামেলা কেন হয়েছে, সেটিও সুন্দরভাবে ব্যাখ্যা করেন অজয় জাদেজা। তিনি বলেন, ‘তরুণ বয়সে এসব আসলে মাথায় আসে না। সে হয়তো ভাবতো আমি অনেক ভালো খেলি, আমি ভালো করব তাহলে বোর্ড কেন আমার কথা শুনবে না। কিন্তু এখন এটা আর হচ্ছে না, এই যুদ্ধটা শেষ। আমি আশা করছি এই মুহূর্তে সব সমাধানে আছে, যেখানে বোর্ড ও সাকিব দুজনই নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে জানে। বোর্ড হয়তো এটা মানে যে এটা আমাদেরই ছেলে, সাকিবও এটা মানে এরা মুরব্বি (বোর্ড) এদের সঙ্গে লড়াই করে আমি কোথায় যাব।’

অজয় যোগ করেন, ‘এখন যেহেতু ওরা (বোর্ড) সাকিবকে আবারও অধিনায়ক করেছে, সে হয়তো নিজের অবস্থান সম্পর্কে জানে। মাঠ ও মাঠের বাইরে নানা ঝামেলার সম্মুখীন হয়েছে সে। স্টাম্পে লাথি মেরেছে, নিষিদ্ধ হয়েছে। তবে একটা বিষয় নিশ্চিত সে ভালো ক্রিকেটার, ভালো ব্যাটার। সে হয়তো এতটাও আক্রমণাত্মক না। কিন্তু পরিসংখ্যানের পাল্লা অনেক ভারি। ১০০০ রান করেছে ১০০'র ওপর উইকেট নিয়েছে, এই ফরম্যাটে একমাত্র সে। এতেই বোঝা যায়, সে কেমন ক্রিকেটার।’

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে ‘ক্লাসের দুষ্ট ছেলে’র সঙ্গেও তুলনা করেন ভারতের সাবেক এই ক্রিকেটার। তিনি বলেন, ‘ক্লাসের দুষ্ট ছেলেকে মনিটর করলে সে ক্লাস সামলে নিবেই। আমি দেখতে মুখিয়ে আছি সাকিব কিভাবে বাংলাদেশ ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যায়। ওর সামনে সুযোগ আছে এই ফরম্যাটে দলের সামর্থ্য প্রমাণের।’

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা