, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

‘গোলমেশিন’ লেভান্ডভস্কি, ‘গোলমেশিন’ বার্সেলোনা

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

‘গোলমেশিন’ লেভান্ডভস্কি, ‘গোলমেশিন’ বার্সেলোনা

রায়ো ভায়োকানোর সঙ্গে গোলশূন্য ড্র দিয়ে মৌসুম শুরু করে বার্সেলোনা। গেল মৌসুমের শেষদিক থেকে চলতি মৌসুমের প্রথম ম্যাচ পর্যন্ত প্রায় ৩৬০ মিনিট বার্সেলোনার ফরোয়ার্ডরা একবারও প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠাতে পারেননি। লিগের দ্বিতীয় ম্যাচের প্রথম মিনিটেই সে গোলখরার ইতি টানেন ইউরোপীয় ফুটবলের ‘গোলমেশিন’ রবার্ট লেভান্ডভস্কি। এই পোলিশ স্ট্রাইকার ও রাফিনিয়া-এরিক গার্সিয়ার গোলে সেভিয়াকে ৩-০ গোলে ধরাশায়ী করেছে বার্সেলোনা।

গোলহীন ম্যাচ দিয়ে মৌসুম শুরু করা বার্সেলোনা লিগে পরের ৩ ম্যাচে প্রতিপক্ষের জাল কাঁপিয়েছে ১১ বার। বার্সেলোনার হঠাৎ ‘আক্রমণাত্মক’ বনে যাওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা এই মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখ থেকে ন্যু ক্যাম্পে যোগ দেওয়া পোলিশ স্ট্রাইকার লেভান্ডভস্কির।

রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ঘড়ির কাঁটা মিনিট পার হওয়ার আগে বল জালে পাঠিয়ে শুরু লেভান্ডভস্কির। সেই ম্যাচে পরে আরও একবার লক্ষ্যভেদ করেন। পরের ম্যাচের রিয়াল ভালাদোলিদের বিপক্ষেও দুইবার জাল কাঁপিয়েছেন এই পোলিশ স্ট্রাইকার। শনিবার রাতে সেভিয়ার বিপক্ষে টানা তৃতীয় ম্যাচে গোলের দেখা পান তিনি। এর মাধ্যমে ৩ ম্যাচ শেষে তার গোলসংখ্যা পৌঁছে গেছে ৫-এ।

হুলেন লোপেতেগির সেভিয়ার বিপক্ষে প্রথম গোলমুখ উন্মুক্ত করেছিলেন এই মৌসুমের বার্সেলোনার আরেক নতুন মুখ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রাফিনিয়া। ম্যাচের ২১ মিনিটে একটি প্রতি-আক্রমণ থেকে হেডে বল জালে জড়ান তিনি। বার্সার হয়ে এটিই তার প্রথম গোল।

৩৬ মিনিটে ক্লাবের নতুন ডিফেন্ডার জুলস কুন্দের শূন্যে ভাসানো বল বুক দিয়ে নামিয়ে দারুণ এক ভলিতে লক্ষ্যভেদ করেন লেভান্ডভস্কি। দ্বিতীয়ার্ধের ৫০ মিনিটে আবারও জুলস কুন্দের অ্যাসিস্ট, এ যাত্রায় তার বানিয়ে দেওয়া বলে ব্যবধান বাড়িয়েছেন আরেক ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া। ব্যাক পোস্টে কুন্দের উদ্দেশে বল বাড়িয়েছিলেন রাফিনিয়া, নিজে গোলের চেষ্টা না করে বরং গোলের সামনে থাকা সতীর্থ গার্সিয়ার দিকে হেডে বল পাঠান, সেখান থেকে সহজ ট্যাপ ইনে বল জালে জড়ান ওই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

৪ ম্যাচ থেকে ৩ জয় এবং ১ ড্রয়ে এখন লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বার্সেলোনা। আর টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। চার ম্যাচ খেলে চারটিতেই জয় পেয়েছে কার্লো আনচেলোত্তির দল।

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা