, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

নিখোঁজের তিন মাসেও বাড়ি ফেরেননি শরিফুল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

নিখোঁজের তিন মাসেও বাড়ি ফেরেননি শরিফুল

নিখোঁজের তিন মাসেও সন্ধান মেলেনি লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের বাড়াইপাড়া গ্রামের নিখোঁজ শরিফুল ইসলামের (২৬)। ছেলে নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই দিশেহারা হয়ে পড়েছেন বৃদ্ধ মা-বাবা।

ছেলের সন্ধান না পেয়ে গত রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে হাতীবান্ধা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন বাবা আশরাফ আলী।

পরিবার সূ্ত্রে জানা যায়, শরিফুল ইসলাম ২০১৮ সালে রংপুর সরকারি কলেজ থেকে দর্শনে স্নাতক (সম্মান) পাশ করেন। গত ১২ জুন রংপুরে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেননি।

শরিফুল ইসলামের উচ্চতা আনুমানিক পাঁচ ফুট তিন ইঞ্চি, গায়ের রং শ্যামলা, মুখমণ্ডল গোলাকার, দেহের গড়ন মাঝারি। বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় তার পরনে ছিল সাদা-কালো রঙের পাঞ্জাবি ও কালো ফুল প্যান্ট।

প্রতিবেশী আমজাদ হোসেন বলেন, শরিফুল অত্যন্ত ভদ্র ছেলে। বাড়িতে মা-বাবার সঙ্গে তার ঝগড়া-বিবাদ কোনো কিছুই হয়নি। সুতরাং পরিবারের কারও ওপর রাগ করে তিনি আত্মগোপন করে আছেন এমনটা হওয়ার কথা না।

jagonews24

শরিফুল ইসলামের মা আন্না বেগম (৪৭) কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার ছেলে রংপুরে যাওয়ার কথা বলে বের হয়ে গত তিন মাস ধরে নিখোঁজ। সে বেঁচে আছে না মরে গেছে তা আল্লাহই জানেন।

তিনি আরও বলেন, প্রতিদিন পথ চেয়ে থাকি যে, আমার শরিফুল ফিরে আসবে। ওকে ফিরে পেতে আমি আর আমার স্বামী পাগলপ্রায়।

টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সেলিম হোসেন বলেন, শরিফুলের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি জেনেছি। আমরা তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম, এ ঘটনায় একটি জিডি হয়েছে। নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধানে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ