, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

দেশে আজ বিদ্যুতের অভাব নেই, অথচ বিএনপি বিদ্যুৎ গিলে খেয়েছে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

দেশে আজ বিদ্যুতের অভাব নেই, অথচ বিএনপি বিদ্যুৎ গিলে খেয়েছে

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি আজ নেতৃত্বশূন্য হয়ে পড়েছে। কারা বিএনপির নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ধামরাই হার্ডিঞ্জ সরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সেতু মন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমানের কু-সন্তান তারেক রহমান অর্থ পাচার করে আজ লন্ডনে বসে রিমোট কন্ট্রোল করছেন। আর রিমোটের নির্দেশনা পেয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীররা কাজ করছেন। যাদের কাছে মানুষ নিরাপদ নয়, মানুষ আর তাদের চায় না।

নিজ দল সম্পর্কে তিনি বলেন, সুসংগঠিত এবং শক্তিশালী করতে দলের নেতাকর্মীদের একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে। সাধারণ জনগণের সঙ্গে মিশে কাজ করতে হবে। বিএনপি জামায়াতের নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে দেওয়া যাবে না। তাদের প্রতিহত করতে হবে।

এসময় কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বিএনপি জামায়াত শাসনামলে দেশ ভীক্ষুকের দেশে পরিণত হয়েছিল। বিএনপি জামায়াত দেশকে লুটপাটে পরিণত করেছে। যারা চিন্তা করেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশ অন্ধকারে ঠেলে দেবে। তারা আজ হতাশ। দেশের মানুষ এখন না খেয়ে থাকে না। দেশে আজ বিদ্যুতের অভাব নেই। আর বিএনপি বিদ্যুৎ গিলে খেয়েছে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেন, যারা নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছেন তাদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদার মনের, তাই তাদের ক্ষমা করে দিয়েছেন। কিন্তু এমন যেন ভবিষ্যতে আর না হয়। দলের পক্ষে কাজ করতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাড. কামরুল ইসলাম, দুর্যোগ ও ত্রাণ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ডাক্তার এনামুর রহমান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাড. রিয়াজুল কবির কাওসার ও ধামরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাদ্দেছ হোসেন।

প্রথম পর্বের অনুষ্ঠান শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ ঘোষণা করেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ধামরাইয়ের সাংসদ বেনজীর আহমদ। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাপতি মনোনীত হয়েছেন সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ এম এ মালেক ও সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরমেয়র আলহাজ গোলাম কবির। সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোনীত হয়েছেন সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ