ময়মনসিংহ, , ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬ অনলাইন সংস্করণ

সজল–পূজার ৪০ ঘণ্টা

  বিনোদন প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

সজল–পূজার ৪০ ঘণ্টা

‘জ্বীন’ ছবিতে সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত


ছবির শেষ দৃশ্য বলে কথা। ছবির গল্পে রহস্যের জটলা। সেই রহস্যের জট পাকাতেই লাগলো টানা ৪০ ঘণ্টা।

বেশ কদিন আগে এফডিসির একটি ফ্লোরে প্রায় দুদিন শুটিং হয় ‘জ্বীন’ ছবির একটি দৃশ্য। শেষ দৃশ্যের উত্তেজনা তৈরিতে কোনো ছাড় দিতে রাজি নন নির্মাতা নাদের চৌধুরী। বিরতি না দিয়ে টানা দুই দিনে শেষ করেছিলেন হরর ঘরনার ছবিটির শেষ দৃশ্যের শুটিং।

ইতিমধ্যে ‘জ্বীন’ ছবির দুটি পোস্টার লুক ও একটি টাইটেল গান প্রকাশিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ‘জ্বীন’ ছবির টিজার প্রকাশিত হয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজে। টিজারজুড়ে নায়িকা পূজাকে ভূতের চেহারায় দেখা গেছে। একটি পুরোনো বাড়ি থেকে তিনি বের হয়েছেন। তাঁর চেহারা দেখে আতঙ্কিত লোকজন। ৫০ সেকেন্ডের পুরো টিজারেই ভীতিকর পরিবেশ।

প্রথমবার জুটি হয়েছেন সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত                                                             প্রথমবার জুটি হয়েছেন সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত


জানা গেছে, এ সিনেমার শেষ দৃশ্যটি ধারণের জন্য ‘জ্বীন’–এর কলাকুশলীরা বেশির ভাগ সময় টানা ১২–২০ ঘণ্টা শুটিং করেছেন। ওই সময়ে ৩–৪টি দৃশ্যের শুটিং হলেও নির্মাতা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু দীর্ঘ সময় একটি দৃশ্যের শুটিং করবেন, এটা সবার কাছেই গোপন করেছিলেন নির্মাতা। নির্মাতা নাদের চৌধুরী জানান, ‘জ্বীন বা দুষ্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে একটি যুদ্ধের প্রয়োজনে আমরা দীর্ঘ সময় শুটিং করেছি। টানা শুটিং করার জন্য সবাইকে আগে থেকে মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতে বলেছিলাম। শুটিংয়ের সময় বলেছি, যত কাজই থাক সেট থেকে মুহূর্তের জন্যও কেউ বাইরে যেতে পারবে না।’

নির্মাতার ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়ে টানা শুটিং করেছেন তারকারা। শুরু থেকে সেটে কীভাবে টানা প্রায় দুই দিন কেটে গেছে, সেটা বুঝতেই পারেননি ছবির কলাকুশলীরা।

সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীতসজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত


ছবিতে নায়ককে দেখা যাবে ফ্যাশন ফটোগ্রাফার চরিত্রে। এই চরিত্রে অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ আবদুন নূর সজল। ‘জ্বীন’ ছবির এই অভিনেতা জানান, ‘আগে থেকেই নির্মাতা বলে রেখেছিলেন শেষ দৃশ্যের বেশির ভাগ শর্ট এক টেকে দিতে হবে। সে জন্য বেশ সময় লাগতে পারে। আমরা বারবার রিহার্সালের পাশাপাশি মানসিকভাবে প্রস্তুতিও নিয়েছিলাম। শুটিংয়ের সময় টিমের সবাই এতটাই কাজে মগ্ন ছিল যে আমরা দিন–রাত ভুলে কাজটি করি। শুটিং শেষ হলে বুঝতে পারি, একটি দৃশ্যের শুটিং করতে কেটে গেছে ৪০ ঘণ্টা।’ জ্বীন এবং মানুষের দ্বন্দ্ব নিয়ে কী ঘটেছিল, সেই শেষের ক্লাইমেক্স দৃশ্যে সেটা দেখা যাবে আগামী মাসে। ৪০ ঘণ্টা শুটিং হওয়া দৃশ্যটি সিনেমায় ১৯ মিনিট দেখা যাবে।

আগামী ১৩ মার্চ দেশজুড়ে মুক্তি পাবে ‘জ্বীন’। ছবির পরিচালক নাদের চৌধুরী বলেন, ‘এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝিতে ছবিটি মুক্তি দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু ছবিতে প্রচুর ভিএফএক্সের কাজ আছে। কলকাতায় ও বলিউডে কাজগুলো করতে সময় যাচ্ছে। এবার ১৩ মার্চ মুক্তি পাবে ছবিটি।’সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত                                                           সজল ও পূজা। ছবি: সংগৃহীত

  • সর্বশেষ - সারাদেশ