ময়মনসিংহ, , ২১ আষাঢ় ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

সরকার এক অশুভ অভিপ্রায় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে: মির্জা ফখরুল

সরকার এক অশুভ অভিপ্রায় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে: মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন দলের অপকর্মের কারণেই এই মহাদুর্যোগের সময় দেশে আরও অনিশ্চয়তার অন্ধকার নেমে এসেছে। এই করোনা মহামারির মধ্যেও দলমত নির্বিশেষে সমন্বিত উদ্যোগ দূরে থাক, বরং সরকার এক অশুভ অভিপ্রায় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।

বুধবার গনমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে ত্রাণ কর্মকাণ্ড চালানোর সময় রাজশাহীর তানোর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবদুল মালেককে গ্রেপ্তার ও কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানোর ঘটনার উদ্বেগ প্রকাশ করেন বিএনপি মহাসচিব। একই সঙ্গে ছাত্রদল নেতা আবদুল মালেকের বিরুদ্ধে করা মামলাসহ দণ্ডাদেশ প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তার নি:শর্ত মুক্তির দাবি ও জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, করোনাভাইরাসের দুর্যোগকালীন সময়ে যখন দুর্ভিক্ষের ছায়া বিরাজমান তখন ক্ষুধার্ত ও নিরন্ন মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলো ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখায় সেটিকে বাধা দেয়ার ঘটনা বিদ্যমান দু:শাসনেরই প্রতিফলন।

এদিকে মঙ্গলবার বগুড়া পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমানের নামে বরাদ্দকৃত ত্রাণের চাল নিয়মবহির্ভূতভাবে জোরপূর্বক বরাদ্দ নেওয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে সরকারদলীয় কতিপয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেয়রের বাসায় সশস্ত্র হামলা ও বাসার দারোয়ানদের মারধর করে গুরুতর আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিছেন বিএনপি মহাসচিব।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সারা দুনিয়ার মানুষ যখন শঙ্কিত তখন এই ভীতি ও শঙ্কার মধ্যেও বাংলাদেশের মানুষ দু:শাসনের প্রভাবে অসহায় হয়ে পড়েছে। জনগণের নিকট জবাবদিহিতাহীন সরকারদলীয় লোকেরা এই মহামারীর মধ্যেও যে নিষ্ঠুর ও অমানবিক আচরণ করছে তা নজীরবিহীন।

ফখরুল বলেন, সরকারদলীয় নেতাকর্মীরা ত্রাণ নিয়ে যে তেলেসমাতি শুরু করেছে তাতে তারা সারাদেশকে নরকরাজ্যে পরিণত করেছে। দেশে যখন নিরন্ন ও ক্ষুধার্ত মানুষ খাদ্যের জন্য হাহাকার করছে তখন দেশব্যাপী ত্রাণ সামগ্রী চুরি ও লুটপাটে ক্রমান্বয়ে পরিস্থিতি আরও বেসামাল হয়ে উঠছে। কোনভাবেই সরকারদলীয় নিয়ন্ত্রণে আসছে না। ত্রাণ নিয়ে নজীরবিহীন ঘটনা ঘটছে বাংলাদেশে। এতে বিশ্বব্যাপী দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি