ময়মনসিংহ, , ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

ওসি-চিকিৎসকসহ আক্রান্ত ৬, শেরপুর হাসপাতালের কার্যক্রম স্থগিত

ওসি-চিকিৎসকসহ আক্রান্ত ৬, শেরপুর হাসপাতালের কার্যক্রম স্থগিত


শেরপুরে দুই চিকিৎসক ও পুলিশের এক ওসিসহ নতুন করে ছয়জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত হলেন।

নতুন করে আক্রান্তের ঘটনায় জেলা সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনোয়ারুর রউফসহ জেলার ৩২ স্বাস্থ্যকর্মীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) রাতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

সিভিল সার্জন বলেন, জেলার নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুই মেডিকেল কর্মকর্তা, ঝিনাইগাতী থানার ওসি, সদর হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স চালক, সিভিল সার্জন অফিসের অফিস সহায়ক ও নারায়ণগঞ্জফেরত এক পোশাককর্মী নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনা শনাক্ত হওয়া ছয়জনকে রাতেই আইসোলেশন ইউনিটে আনা হয়েছে।

এ ঘটনায় জেলা সদর হাসপাতাল ও নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কার্যক্রম স্থগিত করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। পাশাপাশি ঝিনাইগাতী থানার ওসির সঙ্গে দায়িত্ব পালনরত সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে জেলা পুলিশ।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনোয়ারুর রউফ বলেন, শুক্রবারের রিপোর্টে ছয়জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তাদের সবাইকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। যেহেতু সদর হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স চালক, সিভিল সার্জন অফিসের অফিস সহায়ক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সেহেতু আমি ও জেলার ৩২ স্বাস্থ্যকর্মী হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছি।

শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম বলেন, ঝিনাইগাতী থানার ওসির যেহেতু করোনা শনাক্ত হয়েছে সেহেতু তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আর ওসির সঙ্গে দায়িত্ব পালনরত সবাইকে হোম কোয়ারেন্টানে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। বর্তমানে ঝিনাইগাতী থানার কার্যক্রম চলমান রয়েছে

  • সর্বশেষ - ময়মনসিংহ অঞ্চল