ময়মনসিংহ, , ৬ আশ্বিন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

ঈশ্বরগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৯ জনকে অর্থদণ্ড

ঈশ্বরগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১৯ জনকে অর্থদণ্ড

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ৯ ব্যবসায়ী ও ১০ পথচারীকে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাকেব স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা না করায় এবং মাস্ক ব্যবহার না করায় ব্যবসায়ী ও পথচারীদের এই দণ্ড দেওয়া হয়। 


করোনাভাইরাস ইস্যুতে কিছু শর্ত সাপেক্ষে সরকার সীমিত পরিসরে বাজার খোলার অনুমতি দিয়েছেন।কিন্তু নির্দেশনা লঙ্ঘণ করে ব্যবসা কার্যক্রম চলায় এবং বাজারগুলোতে মানুষের ভীড় শুরু হওয়ায় রোববার রাতে ময়মনসিংহ জেলার প্রশাসকের নির্দেশে জেলার সকল বাজার বন্ধ ঘোষণা করা হয়। শুধু ওষুধ, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও জরুরি পরিসেবা এ আওতার বাইরে রাখা হয়েছে। নির্দেশনাটি ঈশ্বরগঞ্জের বিভিন্ন বাজারে রোববার রাতেই মাইকিং করে দেওয়া হয়। কিন্তু সোমবার সকাল থেকে বাজারে মানুষের আগমন শুরু হতে থাকে। কিছু কিছু দোকান গোপনে খোলে ভেতরে ক্রেতা রেখে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করছিলো। এ ছাড়া মনোহারি দোকান গুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছিল না। বাজারে যত্রযত্র মাস্ক ছাড়া চলাফেলা করছিল মানুষ। ওই অবস্থায় বেলা ১২ টা থেকে ঈশ্বরগঞ্জ পৌরবাজারে অভিযান শুরু করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাঈদা পারভীন। 


অভিযান চালিয়ে ৯ ব্যবসায়ী ও ১০ পথচারীকে ৬৫ হাজার ২০০ টাকা অর্থদণ্ড দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ঈশ্বরগঞ্জ বাজারের আলী আকবর, নুরুজ্জামান, হুমায়ূন কবির, মোস্তাফিজুর, আবদুল্লাহ, বাবুল, আঠারবাড়ি বাজারের জাহাঙ্গীর আলম, মি. নিরব। এছাড়া এক ব্যবসায়ী ও ১০ পথচারীও রয়েছে।


উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন বলেন, সরকারি নির্দেশনা ও আইন লঙ্ঘণ করে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করায় ব্যবসায়ীদের ও পথচারীদের অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ - মহানগর