ময়মনসিংহ, , ২০ আষাঢ় ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

কলমাকান্দায় পল্লী বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিলে দিশেহারা গ্রাহক

কলমাকান্দায় পল্লী বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিলে দিশেহারা গ্রাহক

ফাইল ছবি

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় পল্লী বিদ্যুৎ গ্রাহকরা কয়েক মাসের অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ বিল হাতে পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।স্থানীয়রা জানায়, গত কয়েক মাস কলমাকান্দা উপজেলার কোনো বাড়িতেই পল্লী বিদ্যুতের কোনো মিটার রিডার আসেননি রিডিং নিতে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে না আসার সুযোগ নিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের মনগড়াভাবে অসংখ্য গ্রাহকের বিল তৈরি করেছেন।


বিগত কয়েক মাসে মিটারে রিডিং কম থাকলেও বিলের কাগজে তা বেশি লিখে গ্রাহকদের হাতে বিল ধরিয়ে দেয়া হয়েছে বলে গ্রাহকদের অভিযোগ।


কলমাকান্দা সদরের থানা রোড এলাকার পল্লী বিদ্যুৎ গ্রাহক ফখরুল আলম খসরু বলেন, আমার নামে আগে স্বাভাবিক অবস্থায় প্রতি মাসে বিদ্যুৎ বিল আসত ৫শ' থেকে ৬শ' টাকা। অথচ গত এপ্রিল মাসে তা অস্বাভাবিভাবে বেড়ে বিল এসেছে ১ হাজার ৪শ' টাকা।


একই এলাকার বিদ্যুৎ গ্রাহক মো. খলিলুর রহমান বলেন, তার প্রতিমাসে বিল আসত এক থেকে দেড় হাজার টাকা। কিন্তু প্রচণ্ড লোডশেডিংয়ের চলতি এই মে মাসে বিল এসেছে প্রায় আড়াই হাজার টাকা। এ যেন এক ভৌতিক কাণ্ড।


উপজেলার প্রায় ৪২ হাজার মিটারের মধ্যে কয়েকটি মিটারের সঙ্গে বিলের কাগজে লিখা রিডিংয়ে গড়মিল থাকার কথা স্বীকার করে কলমাকান্দা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির এজিএম মো. আনিসুল হক যুগান্তরকে বলেন, সামনের মাসগুলোতে ক্রমান্নয়ে এ সব সমন্বয় করে দেয়া হবে।

  • সর্বশেষ - মহানগর