ময়মনসিংহ, , ১৯ আষাঢ় ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

ঈশ্বরগঞ্জে খাদ্য গুদামের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রত্যাহার

ঈশ্বরগঞ্জে খাদ্য গুদামের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রত্যাহার

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে খাদ্য গুদামে অনিয়মের অভিযোগে সেখানকার সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে বিষয়টি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. জহিরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। একই সঙ্গে খাদ্য গুদামটিতে অনিয়মের তদন্ত চলছে।


উপজেলার আঠারবাড়ি খাদ্যগুদামে গেল বছরের অক্টোবরের শেষের দিকে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (উপ খাদ্য পরিদর্শক) হিসেবে যোদগান করেন মো. আশরাফ আলী। অভিযোগ উঠেছে, যোগদানের পর অসাধু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে ওঠে। চলতি বোরো মৌসুমে আঠারবাড়ি খাদ্য গুদামে প্রায় ৩০০ মেট্রিক টন চাল কেনার সক্ষমতা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। ঈদ উপলক্ষে গুদামের কর্মীদের ছুটি দিয়ে চোরাই পথে কেনা চাল খাদ্য গুদামে প্রবেশ করান আশরাফ আলী। নান্দাইল উপজেলার ১০ টাকা কেজির চাল সিন্ডিকেট ব্যবসায়ী মতি মিয়া ও মিলন মিয়া খাদ্য গুদামে জমা করেন মেসার্স ফরিদা রাইস মিলের নামে।


এমন খবর পেয়ে গত মঙ্গলবার বিকেলে অভিযানে যান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন। ওই সময় এক নম্বর গুদামে প্লাস্টিক ও অন্যান্য বস্তায় প্রায় ৪ মেট্রিক টন চাল পাওয়া যায়। ওই অবস্থায় চাল জব্দ ও গুদামটি সিলগালা করা হয়।


খাদ্য কর্মকর্তার অনিয়মের খবর পেয়ে বুধবার সকালে হঠাৎ এসে হাজির হন খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সারোয়ার মাহমুদ। তিনি ঈশ্বরগঞ্জ খাদ্য গুদাম ও আঠারবাড়ি খাদ্যগুদাম পরির্দশন করেন। আঠারবাড়ি খাদ্যগুদামে অনিয়মের বিষয়টি তদন্তের জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জহিরুল ইসলামকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক (কারিগরি) শাহ আলাউদ্দিন ও সহকারী রসায়নবিদ উত্তম কুমার। গত দু’দিন ধরে তদন্তদল গুদামটিতে তদন্ত কাজ পরিচালনা করছেন।


এদিকে অনিয়মের অভিযোগে খাদ্য গুদামটির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (উপ খাদ্য পরিদর্শক) মো. আশরাফ আলী ও ৭ নিরাপত্তা কর্মীকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।ময়মনসিংহ জেলা খাদ্যনিয়ন্ত্রক মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, গুদামের খামাল পুরো পরীক্ষা নিরিক্ষার কাজ চলছে। পুরু বিষয়টি তদন্ত শেষে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে গুদামটির কর্মকর্তা ও কর্মীদের প্রত্যাহার করা হয়েছে।


ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন বলেন, খাদ্যগুদামে চাল অনিয়মের সাথে জড়িতদের শনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রককে নির্দেশ নেওয়া হয়েছে। জব্দকৃত চাল শনিবার উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে।

  • সর্বশেষ - মহানগর