ময়মনসিংহ, , ২২ শ্রাবণ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

শায়েস্তাগঞ্জে লটারির মাধ্যমে কেনা হচ্ছে কৃষকের ধান

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

শায়েস্তাগঞ্জে লটারির মাধ্যমে কেনা হচ্ছে কৃষকের ধান

ফাইল ছবি

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় লটারির মাধ্যমে কৃষকদের ধান কেনা শুরু হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে কৃষকদের সহায়তায় সরকার চড়া দামে ধান কিনছে।


ইতোমধ্যে উপজেলায় সবকটি ইউনিয়নে তালিকা পৌঁছে গেছে। শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় সরকারিভাবে লটারির মাধ্যমে নির্বাচিত কৃষকদের ধান কেনা শুরু হয়েছে।


প্রতি ইউনিয়ন থেকে ৪০০-৫০০ জনের তালিকা দেয়া হয়েছিল কৃষি অফিসে। এদের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে যারা নির্বাচিত হয়েছেন ২২৭ জন। তাদের প্রতেকের কাছ থেকে ১ হাজার ৫০ টাকা করে ২৫ মণ ধান কেনা হবে। পুরো জুন মাস জুড়েই শায়েস্তাগঞ্জ খাদ্য গুদাম কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করবে। সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে কৃষকদের পাওনা দেয়া হবে।


উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নে ৭৯ জন, শায়েস্তাগঞ্জ ইউনিয়নে ৪৩ জন, ব্রাক্ষণডুরা ইউনিয়নে ৭৮ জন ও শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার ২৭ জন কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করা হচ্ছে।


এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দ্বায়িত্ব) সুকান্ত ধর বলেন, যাতে করে প্রকৃত কৃষক সরকারকে ধান দিতে পারেন, সেজন্য প্রতি ইউনিয়নে মোট উৎপাদিত ধানের ওপর ভিত্তি করে প্রত্যেক ইউনিয়নে কৃষক মনোনীত করা হয়েছে।


শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল বলেন, প্রকৃত কৃষক ছাড়া মধ্যস্বত্বভোগী কোনো লোক যাতে সরকারকে ধান দিতে না পারে, সেকারণ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী লটারির মাধ্যমে উপজেলায় ২২৭ জনকে নির্ধারণ করা হয়েছে। তারপরও ধান কেনায় যাতে কোনো নয়-ছয় না হয় সেজন্য সার্বিক পরিস্থিতি নজরে রাখবে উপজেলা প্রশাসন।


  • সর্বশেষ - সারাদেশ