ময়মনসিংহ, , ২১ শ্রাবণ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন আরো ১৯ জন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন আরো ১৯ জন
ভোর থেকে ভ্যান শুয়ে অপেক্ষা করে সকাল ১১টা পর্যন্ত ডাক পায়নি এই যুবক ছবি:- সংগৃহীত


করোনা উপসর্গ নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে আরো অন্তত ১৯ জনের মৃত্যু ঘটেছে।নরসিংদী প্রতিনিধি জানান, নরসিংদী সদর উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে দুই নারীসহ পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা হলেন, নরসিংদী পৌরশহরের বানিয়াছল এলাকার সন্ধ্যা রানী দাস, পশ্চিমকান্দা পাড়ার নাজমুল হোসেন (৫৬) ও কাজল রানী সাহা (৫৭), গাবতলী এলাকার নাজমুল কবীর (৫৫), সঙ্গীতা এলাকার আবুল কাশেম (৬০) ও মাধবদীর আজিজুন বেগম (৫৫)।


হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) সংবাদদাতা জানান, হাজীগঞ্জে গত মঙ্গলবার করোনা উপসর্গ নিয়ে আরো চার জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন, উপজেলার ৪ নম্বর কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেন মল্লিক (৬৫), ৩ নম্বর কালচোঁ ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের সুনিল চন্দ্র দেবনাথ (৫৫) পৌর এলাকার টোড়াগড় গ্রামের আবুল কাশেম (৫৫) ও খাটরা বিলওয়াই সিদ্দিক কাজীর ছেলে সাগর কাজী (৪০)।

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা জানান, রামগতিতে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে কামাল উদ্দিন (৫৩) নামে এক স্কুলশিক্ষক মঙ্গলবার দুপুরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিত্সাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃতদেহের নমুনা সংগ্রহ করে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছে এবং তার বাড়িটি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে।

চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, চন্দনাইশ উপজেলায় মঙ্গলবার রাতে করোনা উপসর্গ নিয়ে মোস্তাফিজুর রহমান সওদাগর (৬৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার জোয়ারা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডস্থ নগরপাড়া এলাকার মৃত নজু মিয়ার ছেলে।

খুলনা অফিস জানায়, খুলনায় করোনার উপসর্গ নিয়ে কাজী মাহবুবুর রহমান (৬০) নামে এক ব্যক্তি মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা সাসপেক্টেড আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিত্সাধীন অবস্থায় মারা যান। তিনি নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার সবুজবাগ এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। করোনা পরীক্ষার জন্য তার দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

ভালুকা (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা জানান, ভালুকায় করোনার উপসর্গ জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে রমিজ উদ্দিন (৫৫) নামে এক আনসার সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিকালে উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের আমতলী এলাকার নিজ বাড়ি থেকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। রমিজ উদ্দিন উপজেলার আমতলী এলাকার মৃত আবদুল হেকিমের ছেলে।

মহাদেবপুর (নওগাঁ) সংবাদদাতা জানান, উপজেলার চেরাগপুর ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের বাসিন্দা ওমর ফারুক (৪০) সোমবার সকালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ঢাকায় মারা যান। তিনি লিডা টেক্সটাইল নামক একটি গার্মেন্টসে সুপারভাইজার পদে কর্মরত ছিলেন। সোমবার বিকালে লাশ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছালে সেখানে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়। মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান মিলন জানান, স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা পরীক্ষার জন্য ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করেছে।

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী জানান, মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান এক ব্যক্তি। মৃত মুস্তাফিজুর রহমানের (৬৩) বাড়ি নওগাঁর তেবাড়িয়ায়। এছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার সকালে চাঁপাই নবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের জৈয়ন্তিপুর গ্রামের রজিদুল ইসলাম (৫০) রামেক করোনা ইউনিটে মারা যান। রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

সীতাকুণ্ডু (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে কুমিরা ইউনিয়নের ছালে আহমদ (৫৫) গত রবিবার মা ও শিশু হাসপাতালে মারা যান। এছাড়া চট্টগ্রাম মেডিক্যালে একই দিন মারা যান ১ নম্বর সৈয়দপুর ইউনিয়নের উত্তর বগাচতর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা জালাল আহমদ (৮০)।

পীরগাছায় মৃত ব্যক্তির লাশ দাফনে বাধা

পীরগাছা (রংপুর) সংবাদদাতা জানান, জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সোমবার রাতে মারা যাওয়া এক ব্যক্তিকে তার গ্রামের বাড়ি রংপুরের পীরগাছা উপজেলায় কবর স্থানে দাফনের সময় বাধা দেয় গ্রামবাসী। পরে ভোর রাতে পরিবারের লোকজন গোপনে তাকে দাফন করেন। মৃত নুরুন্নবী মিয়া (৩২) উপজেলার অনন্তরাম চড়কতলা গ্রামের ছাকা মণ্ডলের ছেলে।
  • সর্বশেষ - সারাদেশ