ময়মনসিংহ, , ১০ আশ্বিন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

বন্যাদুর্গতদের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান রিজভীর

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

বন্যাদুর্গতদের সহায়তায় এগিয়ে আসার আহ্বান রিজভীর

বন্যাদুর্গত মানুষদের সাহায্যের জন্য সকারের কোনো তৎপরতা নেই অভিযোগ করে অবিলম্বে বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষকে বাঁচাতে দেশবাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।


শনিবার (১১ জুলাই) রাজধানীল নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ভিডিও কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন।


রিজভী বলেন, দেশের উত্তর ও পূর্বাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। লাখ লাখ মানুষ পানিবন্দী। ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় সিলেট ও সুমানগঞ্জ জেলায় শত শত কিলোমিটার সড়ক বিপর্যস্ত হয়ে কয়েকশ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় চাঁদপুর শহরও এখন বিপজ্জনক অবস্থায়। এছাড়া ভারতের গজলডোবায় সবকটি গেট খুলে দেয়ায় এবং বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, লালমনিরহাট, রংপুর, গাইবান্ধায় হু হু করে বন্যার পানি ঢুকে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এদিকে উজানের পানিতে ফরিদপুরসহ দেশের মধ্যাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকায় অসংখ্য মানুষ এখন পানিবন্দী। কিন্তু বন্যাকবলিত এলাকায় সরকার সম্পূর্ণ নির্বিকার। বন্যা উপদ্রুত মানুষের সাহায্যের জন্য সরকারের কোনো তৎপরতা নেই।


তিনি আরও বলেন, এমনিতেই করোনার অভিঘাতে বিপর্যস্ত দেশ তার ওপর ধেয়ে আসার বন্যার কবলে জনজীবন এখন চরম ভোগান্তির মধ্যে। অবিরাম বর্ষণে গরিব মানুষের ঘরবাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় গবাদিপশু নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে মানুষ। আমরা অবিলম্বে বন্যাদুর্গত এলাকায় মানুষকে বাঁচাতে দেশবাসীকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করছি।


সরকারের সমালোচনা করতে গিয়ে রিজভী বলেন, আওয়ামী জাহেলিয়াতের এই অন্ধকার সময়ে ক্ষমতাসীন দলের সরকার ও প্রশাসনের প্রশ্রয়ে জেকেজি হেলথ কেয়ার কিংবা আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপকমিটির সদস্য শাহেদ চক্রের দৌরাত্ম্য শুধুমাত্র নগদ অর্থ কেলেঙ্কারির মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, এরা মানুষের জীবন নিয়েই ব্যবসা শুরু করে দিয়েছিল করোনা পরীক্ষার নকল সনদ দিয়ে। তাদের এই ব্যবসার বলি হচ্ছে জনগণ।


তিনি বলেন, বর্তমান আমলে দুর্নীতি-অনিয়ম-চুরি-বাটপারি এখন যেভাবে নির্বিঘ্নে অবাধ হয়েছে, আওয়ামী শাসন ব্যতিরেকে কখনোই এমন ছিল না। সাহেদরাই বর্তমান আওয়ামী শাসনের নমুনা। করোনার আঘাতে মানুষ চিকিৎসা বঞ্চিত। জীবন হাতের মুঠোয় নিয়ে কাতরাতে কাতরাতে হাসপাতাল থেকে হাসপাতালে ছুটছে মানুষ। প্রতিদিন মানুষ মারা যাচ্ছে। কতো মানুষ মারা যাচ্ছে তার সঠিক পরিসংখ্যান নিয়েও জনমনে সন্দেহ রয়েছে। এই দুর্বিষহ সংকটের মধ্যেও চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়ের নামে শত শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সরকারি দলের লোকেরা।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি