ময়মনসিংহ, , ১০ আশ্বিন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

চায়ের দোকানে বসা নিয়ে সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২৫

চায়ের দোকানে বসা নিয়ে সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২৫

নেত্রকোনার মদনে চায়ের দোকানে বসা নিয়ে দ্বন্দ্বে দুই পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ২৫ আহত হয়েছেন। শুক্রবার (৭ আগস্ট) সকালে উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের পাছআলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে এ ঘটনা ঘটে।


৭নং নায়েকপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন ও একই গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিনের গ্রুপের মধ্যে ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে চলে। পরে মদন থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে হেলিম, শাহ আলম, মোবারক ও ডালিম নামে চারজনকে আটক করে। এ সময় মদন থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) বিপ্লব আহত হয়েছেন।


সংঘর্ষে আহত আবুল কাশেম, আবু বকর, আহাদ, মিলন, জজ মিয়া, ও ফয়সালের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও আহত শাহ আলম, সিরাজুল, মুস্তাকিম, রতন, তারা মিয়া, জীবন মিয়া, লিটন, বাদল, মাইশারা আক্তার ও ফাতেমা আক্তারকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সানজিদা খানম। আহত অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।


পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় জনতা বাজারে চান মিয়ার দোকানে পাছআলমশ্রী গ্রামের আজিজুল ও খোকন চা খেতে যান। পরে দোকানের ভেতর থেকে একটি বেঞ্চ বাইরে আনলে দোকান মালিক ও আজিজুলের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়। এরই জের ধরে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে পাছআলমশ্রী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।


এ ব্যাপারে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খালিয়াজুরি সার্কেল) জামাল উদ্দিন জানান, চায়ের দোকানে বসা নিয়ে শুক্রবার পাছআলমশ্রী গ্রামে সংঘর্ষে এসআই বিল্পবসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে আটক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ - মহানগর