ময়মনসিংহ, , ৯ কার্তিক ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে চার মাস অনুশীলন জাতীয় হকি দলের

  স্পোর্টস ডেস্কb

  প্রকাশ : 

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে চার মাস অনুশীলন জাতীয় হকি দলের

এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক হকিতে নতুন দিগন্তের সূচনা হবে বাংলাদেশের। আগামী ১১ থেকে ১৯ মার্চ ঢাকার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে বসবে এশিয়ার হকির মর্যদার এ টুর্নামেন্ট। ছয় জাতির এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের অংশগ্রহণের সুযোগ স্বাগতিক হিসেবে।

সাধারণত এশিয়ার শীর্ষ ৬ দল নিয়ে হয়ে থাকে এই চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। এবার শীর্ষ পাঁচের সঙ্গে থাকছে বাংলাদেশ। বোঝাই যাচ্ছে, ঘরের মাঠের এই আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে আন্ডারডগ থাকবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই বলে দেয়া যায়, নাটকীয় কিছু না ঘটলে ছয় দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান কেমন হবে।

তাই বলে আগেই হাল ছাড়তে নারাজ বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। আয়োজক হিসেবে যেমন সফল হওয়া লক্ষ্য, তেমন লক্ষ্য মাঠে জাতীয় দলের একটা ভালো পারফরম্যানস। একটা লড়াকু বাংলাদেশ দল দেখতে তাই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে সিতুল-আশরাফুলদের অন্তত ৪ মাস অনুশীলন করাতে চায় ফেডারেশন।

বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ সভাপতি আবদুর রশিদ শিকদার জানিয়েছেন, ‘আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে নির্বাহী কমিটির সভা আছে। সে সভাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নতুন বছরের প্রথম তিন মাসে দুটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজন, ঘরোয়া হকিসহ বেশ কিছু বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে ঐ সভা থেকে।’

কয়েকদিন আগে সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক সাঈদকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে ফেডারেশন থেকে। ঐ সভায় নির্বাহী কমিটির সদস্যদের সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবেন ফেডারেশনের সভাপতি বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত। জাতীয় দলের প্রস্তুতি, কোচ নিয়োগসহ আরও কিছু বিষয়ের সিদ্ধান্ত এ সভাতেই নিতে পারে ফেডারেশন।

অক্টোবর-নভেম্বরের দিকে প্রিমিয়ার লিগ শুরুর শুরু করা যায় কি না সে বিষয়ে লিগ কমিটির সঙ্গে আলোচনা করতে ৫ সহ সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদককে দায়িত্ব দিয়েছেন সভাপতি। গত সপ্তাহে তারা এক দফা আলোচনা করেছেন নিজেদের মধ্যে। মঙ্গলবার আবার বসবেন তারা।

ফেডারেশনের ইচ্ছা অক্টোবর বা নভেম্বরে প্রিমিয়ার লিগ শুরু করা। জাতীয় দল গঠনের জন্যও লিগটা দ্রুত শুরু করা প্রয়োজন মনে করছেন আবদুর রশিদ শিকদার, ‘লিগ শুরু হলে জাতীয় দলের জন্য খেলোয়াড় বাছাই করা সহজ হবে। যে কারণে সভাপতি মহোদয় চাচ্ছেন অক্টোবর বা নভেম্বরে লিগ শুরু করতে।’

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শুরু হবে ১১ মার্চ। তার অন্তত চার মাস আগে জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরুর চিন্তা করছে ফেডারেশন। ‘এখন অনূর্ধ্ব-২১ দলের ফিটনেস ক্যাম্প চলছে। যুব দলের ক্যাম্প পুরোপুরি চালুর পর জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরুর ইচ্ছে আমাদের। কারণ যুব দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় জাতীয় দলে থাকবেন। সবকিছু মিলিয়ে চার মাসের মতো অনুশীলন করিয়ে জাতীয় দলকে মাঠে নামাতে চাই’- বলেছেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ সভাপতি আবদুর রশিদ শিকদার।

পরপর দুটি টুর্নামেন্ট হলেও বাংলাদেশের বেশি নজর অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপে। কারণ এই টুর্নামেন্ট যুব বিশ্বকাপেরও বাছাই পর্ব। সেমিফাইনালে উঠতে পারলেই বিশ্বকাপে নাম লেখাতে পারবে যুবারা। তাই যুব টুর্নামেন্ট নিয়ে আশাবাদী ফেডারেশন।

তাই বলে কি জাতীয় দল নিয়ে কোনো আগ্রহ থাকবে না? থাকবে। আবদুর রশিদ শিকদার বলেছেন, ‘চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ভালো ফলাফল করার সম্ভাবনা নেই সেটা ঠিক। কিন্তু মাঠে যেন আমাদের দল লড়াকু খেলা উপহার দিতে পারে সেভাবেই তাদের তৈরি করা হবে। আমরা আয়োজক হিসেবে যেমন সফল হতে চাই তেমন অংশগ্রহণেও পজিটিভ কিছু লক্ষ্য। ঘরের মাঠে টুর্নামেন্ট। দর্শকদের ভালো কিছু উপহার দিতে চাই। আর এটা হবে আমাদের প্রথম চ্যাম্পিয়নস লিগে অংশগ্রহণ। অভিষেকটা যেন ভালো হয় সে চেষ্টাই থাকবে আমাদের।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অংশ নেবে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান। টুর্নামেন্টের সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন ভারত ও পাকিস্তান। ওমানে অনুষ্ঠিত গত আসরের ফাইনাল বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়ায় দুই দেশকে যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করেছিল এশিয়ান হকি ফেডারেশন।

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা