ময়মনসিংহ, , ১০ কার্তিক ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

মৃত্যুর পর বন্ধু হলেও সুশান্তকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কঙ্গনা

  বিনোদন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

মৃত্যুর পর বন্ধু হলেও সুশান্তকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন কঙ্গনা

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ১৪ জুন আত্মহত্যা করেছেন। নিজ গৃহে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে তার মরদেহ। তবে সুশান্তের এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা মেনে নিতে চাইছেন না তার ভক্ত-অনুরাগীরা। তাদের দাবি, ষড়যন্ত্র করে মেরে ফেলা হয়েছে এই অভিনেতাকে।


অনেকের সঙ্গে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতও তেমনটা মনে করেন। তার ভাষ্য, বলিউডে স্বজনপ্রীতির কারণে অনেকেই বাইরে থেকে এসে কাজ করতে গিয়ে হতাশ হন। হতাশা থেকে নিজের জীবন শেষ করে দেন। সুশান্তেও বেলাতেও তাই হয়েছে। তিনি স্বজনপ্রীতি ও বলিউডে বিভিন্ন মাফিয়া-গ্যাংদের শিকার।


কঙ্গনা রানাউত সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে অভিযোগ করেছেন যে সুশান্তকে ইন্ডাস্ট্রি গ্রহণ করেনি। তাকে চলচ্চিত্রের মানুষেরা মানসিক অত্যাচার করেছে। তিনি কীভাবে বহিরাগতদের সাথে অসুস্থ আচরণ করা হয় এবং তারকাদের সন্তানেরা কীভাবে সুশান্তের মতো বহিরাগতদের কাছ থেকে প্রকল্প চুরি করে সে সম্পর্কে বলেছিলেন। যাদের শিল্পে গডফাদার নেই তারা এভাবেই মারা যায় বলে প্রকাশ্যে দাবি করে বিতর্কের জন্ম দেন। তিনি আরও বলেছিলেন যে সুশান্তের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার নষ্ট করতে মুভি মাফিয়ারা একসঙ্গে কাজ করেছে। তিনি খুব খুশি হতেন যদি সুশান্তের সঙ্গে কোনো সিনেমায় কাজ করতে পারতেন। এইসব মন্তব্যের কারণে সুশান্তের ভক্তদের প্রিয় তারকা হয়ে উঠেছেন এই মুহূর্তে কঙ্গনা। তাকে দেখা হচ্ছে সুশান্তের সবচেয়ে ভালো বন্ধু হিসেবে।


তবে মজার ব্যাপার হলো বেঁচে থাকতে সুশান্তকে হতাশ করেছিলেন এই কঙ্গনা নিজেই। বলিউড লাইফসহ বেশ কিছু ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে অনেক তারকাদের সন্তানেরাই জুটি হয়ে কাজ করেছেন। সুশান্তের সঙ্গে বলিউডে সব বড় তারকাদেরই ভালো সম্পর্ক ছিলো। বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলোও সুশান্তকে নিয়ে কাজে আগ্রহী ছিলো। বরং একটি ছবির প্রস্তাব দেয়া হয়েছিলো কঙ্গনাকে। সেই ছবিটি তিনি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত এই চলচ্চিত্রটি আর তৈরি হয়নি।


২০১৬ সালে ওই ছবিটির প্রস্তাব যখন আসে কঙ্গনা তখন শহীদ কাপুর এবং সাইফ আলি খানের বিপরীতে ‘রাঙ্গুন’ ছবিতে কাজ করছিলেন। পাশাপাশি হংসল মেহতার ‘সিমরান’ ছবিতে কাজ করা নিয়েও কথা চলছিলো তার। তাই শিডিউল সংক্রান্ত সমস্যা রয়েছে বলে সুশান্তের সঙ্গে ছবিটি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। তবে সেটিকে স্রেফ অজুহাত বলেই দেখা হচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই দাবি করছেন, সুশান্ত একজন নতুন তারকা বলেই তার সঙ্গে জুটি হয়ে কাজ করতে চাননি কঙ্গনা। সে ছবিতে আরও কাজ করার কথা ছিলো প্রয়াত অভিনেতা ইরফান খানের।


সুশান্তের সঙ্গে কাজের সুযোগ না পাওয়ায় নিজেকে দুর্ভাগ্যবান বলে দাবি করা কঙ্গনার নতুন এই খবরটি বেশ সাড়া ফেলেছে সুশান্ত ভক্তদের মধ্যে। তাদের অনেকে কঙ্গনাকে শিডিউলজনিত সমস্যা বিবেচনা করে তার পাশে থাকলেও অনেক সুশান্ত ভক্তই মনে করছেন কঙ্গনা নিজের স্বার্থে সুশান্তের মৃত্যুকে ইস্যু হিসেবে কাজে লাগাচ্ছেন। তিনিও তার জায়গায় সৎ নন। অনেকে আবার কঙ্গনাকে বয়কটেরও ডাক দিয়েছন।

  • সর্বশেষ - বিনোদন