ময়মনসিংহ, , ৭ কার্তিক ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় শত শত ট্রাক

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় শত শত ট্রাক

পদ্মার তীব্র স্রোত, নাব্য সংকট ও কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুট বন্ধ থাকায় যানবাহনের বাড়তি চাপ পড়েছে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায়। এতে দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে দৌলতদিয়া-খুলনা ও ঘাট থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ মোড়ের রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে কয়েকশ পণ্যবাহী ট্রাক সিরিয়ালে আটকা পড়েছে। তবে ভোগান্তি ছাড়াই ফেরিতে উঠছে যাত্রীবাহী বাসসহ অন্যান্য ছোট গাড়ি।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে দৌলতদিয়া ও গোয়ালন্দ মোড় প্রান্তের সড়কে এমন চিত্র দেখা গেছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের চাপ আরও বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে নদী পারের অপেক্ষায় সড়কে দিনের পর দিন আটকে থেকে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে চালক ও হেলপাররা। গোসল, খাওয়া-দাওয়া, বাথরুম সমস্যাসহ তারা নানান সমস্যা পোহাচ্ছে। আবার সময়মতো মালামাল পরিবহন না করতে পেরে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।

jagonews24

ট্রাক চালকরা জানান, তাদের ভোগান্তির শেষ নেই। ঘাট থেকে প্রায় ১৩ কিলোমিটার দূরে তাদের আটকে রাখা হয়েছে। এখানে থাকা, খাওয়া, গোসল, বাথরুমসহ কোনো সুযোগ সুবিধা নেই। রাস্তায় দিনের পর দিন আটকে থাকতে হচ্ছে। অনেক দূরে গিয়ে গোসল, খাওয়া-দাওয়া, বাথরুম করে আসতে হয়। এছাড়া সময়মতো মালামাল পরিবহন করতে না পেরে লোকসান গুনতে হচ্ছে এবং খচর হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। ফেরিতে যাত্রীবাহী পরিবহন ও ছোট গাড়ির পাশাপাশি কয়েকটি করে ট্রাক পারাপারের সুযোগ দিলে কিছুটা হলেও তাদের ভোগান্তি কমতো।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট সহকারী ব্যবস্থাপক মো. মাহবুব হোসেন জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরির সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। যানবাহনের বাড়তি চাপ থাকলেও পরিবহন ও ছোট গাড়ির সিরিয়াল নেই। ঘাট প্রান্তে দেড় শতাধিক ও গোয়ালন্দ মোড়ে কিছু ট্রাক সিরিয়ালে আছে। বর্তমানে এ রুটে ১৮টি ফেরি চলাচল করছে। তবে তীব্র স্রোত ও পাটুরিয়া প্রান্তের নাব্য সংকটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ