ময়মনসিংহ, , ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের জন্য হাসপাতালের প্রস্তাব

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের জন্য হাসপাতালের প্রস্তাব

প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের চিকিৎসা সেবায় হাসপাতাল তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এজন্য ‘প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার হাসপাতাল’ নামকরণের প্রস্তাবও করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে একটি সভা করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকে প্রধান করে ৩২ সদস্যের একটি মূল কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।


ডিপিই থেকে জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের ৪ লাখ ২০ হাজার শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। তাদের ও পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ঢাকার মধ্যে বা তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় একটি হাসপাতাল নির্মাণের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিষয়টি মৌখিকভাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের সম্মতিতে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা তৈরি করা হয়েছে।


ডিপিই’র সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আব্দুর রেজ্জাক সিদ্দিকী জাগো নিউজকে বলেন, প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের সদস্যদের জন্য একটি হাসপাতাল তৈরির পরিকল্পনা শুরু করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে এ সংক্রান্ত একটি সভা করে ডিপিই’র মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহকে প্রধান করে ৩২ সদস্যদের একটি মূল কমিটি ও চারটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে।


তিনি বলেন, হাসপাতাল স্থাপনে অর্থ সংস্থান, জমি নির্বাচন, হাসপাতালের গঠন ও সেবা সংক্রান্ত বিষয়ে উপকমিটির সদস্যদের মূল কমিটিকে প্রস্তাব দিতে বলা হয়েছে। সেসব প্রস্তাব মূল কমিটির মাধ্যমে অনুমোদন করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে অনুমোদন দেয়া হলে রাজধানীর কোনো স্থানে অথবা তার আশেপাশে একটি হাসপাতাল স্থাপনের কাজ শুরু করা হবে।


এ বিষয়ে জানতে চাইলে অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ জাগো নিউজকে বলেন, প্রাথমিকের বিশাল একটি পরিবার রয়েছে। তাদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে একটি হাসপাতাল হলে সকলে উপকৃত হবে। সেই চিন্তাভাবনা থেকে কর্মকর্তারা একটি প্রস্তাবনা তৈরি করেছেন। এ সংক্রান্ত একাধিক কমিটি গঠন করে তাদের হাসাপাতাল স্থাপন সংক্রান্ত প্রস্তাবনা দিতে বলা হয়েছে। প্রস্তাবনা পেলে পরবর্তী কার্যক্রম শুরু করা হবে বলে জানান তিনি।

  • সর্বশেষ - শিক্ষাঙ্গন