ময়মনসিংহ, , ৫ কার্তিক ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

স্থানীয় সরকার সংস্কারে হচ্ছে কমিশন, প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

স্থানীয় সরকার সংস্কারে হচ্ছে কমিশন, প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি

সংস্কারের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা আরও কার্যকরের জন্য কমিশন গঠন করতে যাচ্ছে সরকার। এ জন্য সম্প্রতি কমিশন গঠনের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখন কমিশন গঠন প্রক্রিয়া এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শুরু করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ  এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘স্থানীয় সরকারের পাঁচ ধরনের আইন আছে। জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন পরিষদ, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা নিয়ে আইন রয়েছে। আইনগুলো বেশ আগে করা, এগুলো ২০০৯ সালে করা হয়েছিল। এই আইনগুলো যুগোপযোগী করার বিষয়ে মতামত দিতে কমিশন হবে, আমরা আইনগুলো সংশোধন করব, কারণ স্থানীয় সরকারগুলো যাতে আরও কার্যকর হয়। কমিশন দেখবে আইনগুলোর মধ্যে কোনো অসামঞ্জস্য আছে কিনা। তারা যে মতামত দেবেন আমরা নেই অনুযায়ী কাজ করব।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী খুব রিসেন্টলি (সম্প্রতি) কমিশন গঠনের ফাইল অনুমোদন করেছেন। এখন আমরা কমিশন গঠনের বিষয়টি দেখছি- কার নেতৃত্বে কমিশন হবে, কমিশনে সদস্য হিসেবে কারা কারা থাকবেন।’

স্থানীয় সরকার বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরও শক্তিশালী করে অধিক কল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তর, সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নিবিড় ভূমিকা পালনে সক্ষম, নিজেদের আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে নিজস্ব ব্যয় নির্বাহ করার সুযোগ সৃষ্টি, স্ব-স্ব এলাকার উন্নয়নে কার্যকর অবদান রাখা এবং আয়-ব্যয়ের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি প্রতিষ্ঠা করতে চায় সরকার। এ জন্য সংশ্লিষ্ট আইনগুলো পর্যালোচনা করে সংশোধনের প্রস্তাব প্রণয়ন ও স্থানীয় সরকারের প্রতিষ্ঠানগুলো সংস্কারের উদ্দেশ্যে ইতিপূর্বে গঠিত বিভিন্ন কমিশন ও কমিটির দাখিল করা প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা ও আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রণয়নে কমিশন গঠন করা হচ্ছে।

দেশের স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা পাঁচ স্তরের। এরমধ্যে ‘স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন, ২০০৯’ অনুযায়ী সিটি করপোরেশন, ‘স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন, ২০০৯’ অনুযায়ী পৌরসভা, ‘জেলা পরিষদ আইন, ২০০০’ অনুযায়ী জেলা পরিষদ, ‘উপজেলা পরিষদ (রহিত আইন পুনঃপ্রচলন ও সংশোধন) আইন, ২০০৯’ অনুযায়ী উপজেলা পরিষদ এবং ‘স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯’ অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদ পরিচালিত হয়।

স্থানীয় সরকার বিভাগের ওই কর্মকর্তা আরও জানান, স্থানীয় সরকারগুলোকে তাদের আইন যুগোপযোগী করে সংশোধন কিংবা সংযোজন-বিয়োজনের বিষয়ে প্রস্তাবনা পাঠাতে বলা হবে। ইতোমধ্যে সিটি করপোরেশনগুলোকে ‘স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন, ২০০৯’ এর বিষয়ে প্রস্তাবনা দিতে বলা হয়েছে। অন্যদেরও বলা হবে। এরপর এই প্রস্তাবনাগুলো কমিশনের কাছে উপস্থাপন করা হবে। কমিশন এগুলো বিবেচনায় নিয়ে সুপারিশ করবেন।

  • সর্বশেষ - জাতীয়