ময়মনসিংহ, , ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানে মারা গেছেন শবনম-শাবানার সহ অভিনেতা

  বিনোদন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

পাকিস্তানে মারা গেছেন শবনম-শাবানার সহ অভিনেতা

মুক্তিযুদ্ধে আগে ১৯৬৭ সালে মুক্তি পায় ক্যাপ্টেন এহতেশাম পরিচালিত ‘চকোরী’ ছবিটি। পাকিস্তানের নাদিম ও বাংলাদেশের শাবানা অভিনীত এই উর্দু ছবিটি ছিলো সুপারহিট। এ ছবি দিয়েই সিনেমায় যাত্রা করেছিলেন অভিনেতা মির্জা শাহি।

এরপর আরও বহু সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন। যেখানে অভিনেত্রী শবনমের সঙ্গেও দেখা গেছে তাকে। গতকাল ২৯ সেপ্টেম্বর এই অভিনেতা মারা গেছেন বলে খবর জানিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম।

মির্জা শাহির কন্যার বরাতে দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন বলছে, প্রবীণ অভিনেতা মির্জা শাহি গতকাল রাতে করাচিতে ইন্তেকাল করেছেন। অভিনেতা গত সপ্তাহে কোভিডে আক্রান্ত হন। এরপর দ্রুতই তার স্বাস্থ্য খারাপ হতে থাকে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে করাচির সিভিল হাসপাতালে ভেন্টিলেটর দেওয়া হয়েছিল।

সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরণ করেছেন। তবে তার কন্যা জানিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত হলেও তার অভিনেতা বাবার মৃত্যু হয়েছে হার্ট অ্যাটাকে।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, মির্জা শাহির কৈশোর ও যৌবনকাল কেটেছে ঢাকায়। এখানেই তিনি ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। অভিনয়ের নেশা থেকে মঞ্চ নাটকে যোগ দেন। তারপর আসেন সিনেমায়। এদেশের শোবিজে বেশ পরিচিত হয়ে উঠেছিলেন তিনি। ঢাকায় থেকেই কাজ করেছেন উর্দু, বাংলা সিনেমাতে।

১৯৭১ সালে যুদ্ধ শুরু হলে মির্জা শাহি ঢাকা ত্যাগ করেন এবং স্থায়ীভাবে পাকিস্তানের করাচিতে বসবাস করতে থাকেন। সেখানে গিয়ে অর্থ সঙ্কট কাটাতে প্রথমে একটি ছোট চাকরির ব্যবস্থা করেন মির্জা শাহি। এরপর অভিনয়ে মনযোগ দেন। শুরুটা করেন পাকিস্তান টিভিতে (পিটিভি) নাটক দিয়ে। এরপর ব্যস্ত হয়েছেন চলচ্চিত্রে। তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছেন অভিনয় জীবনে। আর ইন্ডাস্ট্রিতেও সজ্জন ব্যক্তি ছিলেন শাহি।

বাংলাদেশের শিল্পীদের সঙ্গে ‘চকোরী’, ‘মালা’, ‘নূপুর’, ‘মিস লংকা’, ‘ছোট সাহেব’র মতো ছবিগুলোতে কাজ করেছেন মির্জা শাহি।

  • সর্বশেষ - বিনোদন