ময়মনসিংহ, , ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

সিলেটে দুর্ঘটনার পর আগুনে নিহত বেড়ে ৪

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

সিলেটে দুর্ঘটনার পর আগুনে নিহত বেড়ে ৪

সিলেটের গোলাপগঞ্জে ট্রাকের সঙ্গে মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চারজনে। এদের মধ্যে গাড়ির ভেতর তিনজন ও দুর্ঘটনাস্থলের পাশে থাকা আরেক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরও চার যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন।


বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে গোলাপগঞ্জের হেতিমগঞ্জ পশ্চিম বাজার এলাকার মোল্লাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।


নিহত চারজনের মধ্যে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- বিয়ানীবাজার উপজেলার চারখাই ইউনিয়নের বারইগ্রামের মৃত কুনু মিয়ার ছেলে রাজন আহমদ (২৭), একই গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে মাইকোচালক সুনাম আহমদ (২৬) ও গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের রফিপুর গ্রামের মঞ্জু মিয়ার শিশুপুত্র হাসান আহমদ (৮)।


নিহতদের মধ্যে শিশু হাসান আহমদ দুর্ঘটনাস্থলের পার্শ্ববর্তী একটি কলোনির বাসিন্দা। দুর্ঘটনার পর মাইক্রোবাসের সিল্ডিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে সৃষ্ট আগুন উড়ে গিয়ে ওই শিশুর ওপর পড়ে। শিশুটি তখন ঘরের বাইরে ছিল। দগ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে সে মারা যায়।


স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে মোল্লাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে পণ্যবাহী একটি ট্রাকের পেছনে নোহা ব্র্যান্ডের একটি মাইক্রোবাস ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রো ও ট্রাকের ভেতরের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে যায়। ঘটনাস্থলেই তিনজন যাত্রী নিহত হন। আহত হন আরও চারজন। মাইক্রোবাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে পার্শ্ববর্তী কলোনিতে গিয়ে পড়ে। এতে মারা যায় শিশু হাসান।


এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক এলাকাবাসী ৯৯৯-এ কল দিয়ে গোলাপগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। তারা এসে নিহতদের উদ্ধার করেন এবং গুরুতর আহত অবস্থায় চারজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।


গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, নিহতদের মরদেহ ওসমানী হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ ও আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ