ময়মনসিংহ, , ৭ বৈশাখ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রামে রক্তাক্ত নির্বাচন হয়েছে : ফখরুল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

চট্টগ্রামে রক্তাক্ত নির্বাচন হয়েছে : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘এই নির্বাচন কমিশনকে আমরা সব সময় বলে আসছি এটি নিরপেক্ষ কোনো সংগঠন নয়। এই প্রতিষ্ঠানটি এখন আওয়ামী লীগের একটা লেজুড়ভিত্তিক সংগঠনে পরিণত হয়েছে।’


নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগের একটা অঙ্গ সংগঠনে পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তার কোনো ব্যক্তিত্ব নেই, সংবিধান অনুসারে তার এই প্রতিষ্ঠানকে চালানোর কোনো ক্ষমতা নেই। আপনারা দেখেছেন গতকাল চট্টগ্রামে একেবারে রক্তাক্ত নির্বাচন হয়েছে। দুই জন কিংবা তিনজন মারা গেছে। বিরোধী দল অর্থাৎ বিএনপির কোনো এজেন্টকে কেন্দ্রে থাকতে দেয়া হয়নি। তাদের শারীরিক অত্যাচার করে বের করে দেয়া হয়েছে।’


বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা ও কিশোরগঞ্জ (আংশিক) নিয়ে গঠিত নীলফামারী-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট শওকত চৌধুরীর বিএনপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ফখরুল।


তিনি বলেন, ‘শওকত চৌধুরীর যোগদানের মাধ্যমে এটাই প্রমাণিত হয়েছে যে বাংলাদেশের মানুষ এখন গণতন্ত্র চায়। বাংলাদেশের মানুষ এখন কথা বলতে চাই। তাদের অধিকার ফিরে পেতে চাই। কিন্তু দুর্ভাগ্য আমাদের, আজকে বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়ে একটি সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে অন্যায়ভাবে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে।’


তিনি বলেন, ‘সংবিধানের মূল কথাই হচ্ছে জনগণ রাষ্ট্রের মালিক। জনগণ নির্বাচনের মাধ্যমে তাদের সরকার গঠন করবে। আর সেটাই হবে জনগণের সরকার। আমরা তাদের বারবার বলেছি এই অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে। এই নির্বাচন কমিশনের এই মুহূর্তে পদত্যাগ করা দরকার। আমরা দাবি করছি এই সরকারকে এই মুহূর্তে পদত্যাগ করতে হবে। পদত্যাগ করে একটা নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে।’


যোগদান অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, রংপুর বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালেক, সৈয়দপুর সাংগঠনিক জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল গফুর সরকার প্রমুখ।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি