ময়মনসিংহ, , ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানে একইদিনে শপথ নিলেন দুই প্রেসিডেন্ট!

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

আফগানিস্তানে একইদিনে শপথ নিলেন দুই প্রেসিডেন্ট!
আশরাফ ঘানি ও আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ (ডানে) ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানে দুই রাজনীতিক প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন। গতকাল একই দিনে দুই জনের শপথগ্রহণে দেশটিতে রাজনৈতিক সংকট আরো ঘনীভূত হয়েছে। তালেবানও সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতার চেষ্টাও ব্যর্থ হয়েছে। খবর আল-জাজিরার

গতকাল সোমবার পৃথকভাবে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি এবং তার বিরোধী নেতা তথা প্রধান নির্বাহী আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ। আশরাফ ঘানিকে স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ।

গত সেপ্টেম্বরে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কারচুপির অভিযোগ নিয়ে ফল প্রকাশে বিলম্ব হয়। গত মাসে ফল প্রকাশ করা হয় এবং ঘানিকে জয়ী ঘোষণা করা হয়। তখনই আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ জানান, তিনি আলাদা সরকার গঠন করবেন। তিনি নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে বলে আবারও উল্লেখ করেন। গত সপ্তাহে ঘানি এবং আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ দুজনই আলাদাভাবে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আমন্ত্রণপত্র পাঠান।

আফগানিস্তানে বিশেষ মার্কিন প্রতিনিধি জালমে খলিলজাদকে সমঝোতার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তার সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে তিনি তালেবানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের শান্তি চুক্তি করতে সক্ষম হয়েছিলেন। আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ শপথ অনুষ্ঠান স্থগিত করতে চেয়েছিলেন। তবে তিনি ঘানির অনুষ্ঠানও স্থগিত করতে বলেন। কিন্তু ঘানি অস্বীকৃতি জানান। দুই জন শপথ নেওয়ায় দেশটিতে দুজন প্রেসিডেন্ট হয়েছেন।

তবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ঘানিকেই সমর্থন করছেন বলে জানিয়েছেন কাবুলের রাজনৈতিক বিশ্লেষক ফায়েজ মোহাম্মদ জালান্দ। কারণ ঘানির শপথ অনুষ্ঠানে খলিলজাদ এবং যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল স্কট মিলারকে অংশ নিতে দেখা গেছে। এদিকে তালেবানের মুখপাত্র সুহায়েল শাহীন বলেছেন, দুই রাজনীতিকের মধ্যকার এই দ্বন্দ্ব শান্তি চুক্তির জন্য ভালো নয়।

  • সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক